নোয়াখালী

হাতিয়ায় জলদস্যু গ্রুপের গোলাগুলিতে নিহত ৩

হাতিয়া, ৩০ সেপ্টেম্বর – নোয়াখালীর হাতিয়ার দুর্গম চর ঘাসিয়ায় জলদস্যুদের দুপক্ষের গোলাগুলির ঘটনায় তিন যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় শাহাব উদ্দিন (৩৫) নামের একজনকে আটক করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন, হাতিয়ার মেঘনা নদী সংলগ্ন চর ঘাসিয়ার বাসিন্দা মো. কবির (৩৬), সাহারাজ (৩৭) ও নবীর উদ্দিন ওরফে নূর নবী (৩৬)। তারা জলদস্যু ফোকর (ফখরুল) গ্রুপের সদস্য বলে জানা গেছে।

শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে মরদেহগুলো ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যার নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমির হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে চর ঘাসিয়া থেকে দুটি ও কুমিল্লা থেকে একটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় অস্ত্রসহ আগের পাঁচজনের পরে আরও একজনকে আটক করা হয়েছে। নিহতের স্বজনদের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার ভোরে চরঘাসিয়ায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই জলদস্যু গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক গোলাগুলি হয়। খবর পেয়ে কোস্টগার্ড অভিযান চালিয়ে নদীপথে পালানোর সময় লক্ষ্মীপুরের রামগতি থেকে অস্ত্রসহ পাঁচ জলদস্যুকে আটক করে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগে ওই চরের নিয়ন্ত্রণ ছিল ডাকাত খোকনের হাতে। একপর্যায়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হন তিনি। এরপর চর এলাকা নতুন করে নিয়ন্ত্রণ নেয় তার ভাই ফোকর (ফখরুল)। কয়েক দিন আগে খোকন জামিনে ছাড়া পেয়ে আবার চরের নিয়ন্ত্রণ পেতে মরিয়া হয়ে উঠেন। একপর্যায়ে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ডাকাত ফোকর (ফখরুল) ও খোকন বাহিনীর মধ্যে বুধবার দিনগত রাতে ব্যাপক সংঘর্ষ শুরু হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাতিয়া কোস্টগার্ডের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট সফিউল কিঞ্জল বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে পাঁচ জলদস্যুকে অস্ত্রসহ আটক করে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। নিহতের বিষয়টি আমরাও শুনেছি, তবে কোনো আলামত পাইনি।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button