বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

নাসার টেলিস্কোপে দেখা গেলো ছায়াপথের ‘কঙ্কাল’

মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসা’র আলোচিত জেমস ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপ একের পর এক মহাকাশের দুর্লভ ছবিই প্রকাশ করছে। এবার আইসি ৫৩৩২ ছায়াপথের মহাজাগতিক ‘কঙ্কাল’ দেখা গেলো জেমস ওয়েবের টেলিস্কোপে। পৃথিবী থেকে প্রায় ২৯ মিলিয়ন বা ২ কোটি ৯০ লাখ আলোকবর্ষ দূরে এই ছায়াপথের অবস্থান।

আকারে মিল্কিওয়ের চেয়ে কিছুটা ছোট আইসি ৫৩৩২। জেমস ওয়েবের তোলা ছবিতে আইসি ৫৩৩২-এর এক রঙিন ছবি দেখা যাচ্ছে। একেবারে এই ছায়াপথের ভেতরের আলোর ঝলকানি সবই ধরা পড়েছে জেমস ওয়েবের ক্যামেরায়। পৃথিবীবাসী আরও এক মহাজাগতিক রঙিন জলের ঘূর্ণিপাকের সাক্ষী হলো।

জেমস ওয়েব বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী টেলিস্কোপ। যেটি ২০২১ সালে সফলভাবে মহাকাশে প্রেরণ করে। ১০ বিলিয়ন ডলারের নাসার ফ্ল্যাগশিপ মিশনখ্যাত জেমস ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপটি হাবল টেলিস্কোপের উত্তরসূরি। ২০২১ সালের ২৫ ডিসেম্বর এটি মহাকাশে পাঠানো হয়।

এর আগে মহাকাশে নক্ষত্রের ঝলকানি, ১৩০০ কোটি বছর আগের মহাবিশ্বের ছবি, কালচে হলুদ বৃহস্পতির ছবি পাঠিয়েছে এই টেলিস্কোপ। সূর্যের একেবারে ভেতরের চিত্রও দেখা গেছে এই টেলিস্কোপের মাধ্যমেই। এবার দেখা গেলো বিজ্ঞানীদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা আইসি ৫৩৩২ ছায়াপথের একেবারে কাছের ছবি।

এই ছবিতে আইসি ৫৩৩২-এর পেছনে লুকানো গ্যালাক্সিগুলোও ধরা দিয়েছে তারার মতো। এদের আলোর ঝলকানি দেখা যাচ্ছে স্পষ্ট। ছায়াপথের প্রতিসাম্য বাহুগুলো তাদের মধ্যবর্তী অঞ্চলগুলোতে থাকা তারা এবং গ্যাসের জন্যও উজ্জ্বল হয়ে ওঠে। এই আলোগুলো ছিল অতিবেগুনী রঙের।

আইস ৫৩৩২ এর ‘কঙ্কালসার’ বাহুগুলো স্পষ্টভাবে উঠে এসেছে ওয়েবের তোলা ছবিতে। এ টেলিস্কোপের ‘মিড-ইনফ্রারেড ইনস্ট্রুমেন্ট (এমআইআরআই)’ সেন্সর মহাজাগতিক বস্তুগুলোকে বিশেষ তরঙ্গদৈর্ঘ্যে দেখতে পারে।

এমআইআরআই সেন্সর মহাকাশে ভাসমান ধুলার স্তর পেরিয়ে এমন কাঠামোকেও চিহ্নিত করতে পারে, যা অন্যান্য স্পেস টেলিস্কোপের চোখে অদৃশ্যই থাকে। প্রচণ্ড শীতল পরিস্থিতিতেও কাজ করতে পারে এমআইআরআই সেন্সর। তাই এ সেন্সরের জন্য আলাদা কুলিং সিস্টেম আছে ওয়েবের।

ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি (ইএসএ) বলেছে, প্রায় সরাসরি পৃথিবীর দিকে মুখ করে থাকায় এ ছায়াপথের আলাদা গুরুত্ব আছে বিজ্ঞানীদের কাছে। নতুন ছবিগুলো প্রকাশের সময় নাসার ওয়েব টেলিস্কোপ দল কিছুটা মজা করেই আইসি ৫৩৩২ এর কাঠামোকে ‘কঙ্কালসার’ আখ্যা দিয়েছে।

যদিও এ বছরের শুরুতে হাবল স্পেস টেলিস্কোপে ধরা পড়েছিল মহাকর্ষীয়বলে ক্ষয়িষ্ণু দুটি ছায়াপথের স্পষ্ট ত্রিমাত্রিক ছবি। যাতে ছায়াপথ দুটির নড়াচড়াও ধরা পড়েছে। ছায়াপথের একটি হলো স্মলার পোলার-রিং গ্যালাক্সি আইসি ১৫৫৯, দ্বিতীয়টি লার্জার স্পাইরাল গ্যালাক্সি এনজিসি ১৬৯। এদের অবস্থান পৃথিবী ৩২ কোটি আলোকবর্ষ দূরে।

এম ইউ/২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button