বিচিত্রতা

প্রেমিকের ভরসায় মাকে রেখে বিদেশে গিয়েছিলেন তরুণী, জানতে পারলেন অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন মা

বেশ কিছু দিনের জন্য দেশের বাইরে যেতে হবে। মা একা থাকবেন, এই ভেবে বিদেশে যাওয়ার আগে প্রেমিককে নিজের বাড়িতে এনে রেখেছিলেন ভেনেসা নামে আমেরিকার এক তরুণী। কিন্তু বিদেশে থাকাকালীন এমন খবর পেলেন, যাতে কার্যত মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার জোগাড় তাঁর। জানতে পারলেন, যে প্রেমিকের ভরসায় মাকে রেখে গিয়েছিলেন, সেই প্রেমিকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতায় অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন তাঁর মা! নিজেই একটি টিকটক ভিডিয়োয় এই কথা জানিয়েছেন ওই তরুণী।

ভেনেসার দাবি, জন নামের এক যুবকের সঙ্গে তিন বছর ধরে প্রণয়ের সম্পর্কে ছিলেন তিনি। কিছু দিন আগে মেক্সিকো যাওয়ার প্রয়োজন হয় তাঁর। মেক্সিকোয় যাওয়ার সময় তাঁর প্রেমিক ও তাঁর মা একই সঙ্গে তাঁদের বাড়িতেই ছিলেন। বিন্দুমাত্র সন্দেহ হয়নি তাঁর। ভেনেসা জানিয়েছেন, তিনি যখন মেক্সিকোতে তখনই আধ শতক পুরনো ‘রো বনাম ওয়েড’ মামলার রায়কে উল্টে দিয়ে গর্ভপাতের কোনও সাংবিধানিক অধিকার নেই বলে বিধান দেয় আমেরিকার সুপ্রিম কোর্ট। ফলে গর্ভপাত অবৈধ ঘোষিত হয়ে যেতে পারে, এই আশঙ্কা দেখা দেয় অনেকের মনে। সেই রায় নিয়ে ফোনে আলোচনা করার সময় হঠাৎ করে কেঁদে ওঠেন তাঁর মা। কান্নার কারণ জিজ্ঞাসা করতে তাঁর মা জানান, তিনি অন্তঃসত্ত্বা।

একটি টিকটক ভিডিয়োয় ভেনেসা জানিয়েছেন, নতুন ভাই বা বোন পাবেন ভেবে প্রথমে আনন্দে নেচে উঠেছিলেন তিনি। কিন্তু সেই আনন্দ দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। যখন তিনি মায়ের কাছে জানতে চান, সন্তানের বাবা কে, তখন মায়ের আসন্ন সন্তানের পিতৃপরিচয় শুনে হতবাক হয়ে পড়েন তিনি। মায়ের হবু সন্তানের পিতা অন্য কেউ নন, তাঁর প্রেমিক জন!

ভেনেসা জানান, এর পর মা ও প্রেমিকের সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করে দেন তিনি। দেশে ফিরে দেখেন, তাঁর মা ও প্রেমিক তাঁর সব জিনিসপত্র বাড়ির বাইরে বার করে দিয়েছেন। কিন্তু ভেনেসা সাফ জানান, তাঁর জিনিসপত্র জায়গা মতো ফেরত না দিলে পুলিশে যাবেন। পুলিশের কথা শুনে ঘাবড়ে যান প্রেমিক। প্রস্তাব দেন সব মিটমাট করে নেওয়ার। তবে ভেনেসা তাতে রাজি হননি। মাস দুয়েক পেরিয়ে গেলেও গোটা ঘটনা কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলেন না। তাই টিকটকে সব কথা খুলে বলার সিদ্ধান্ত নেন ভেনেসা। আর তার পরই এই ভিডিয়ো তৈরি করলেন তিনি।

সূত্র : আনন্দবাজার
এন এ/ ২৫ সেপ্টেম্বর

Back to top button