বলিউড

সবাই আমাকে দেখলে তাকিয়ে থাকে

মুম্বাই, ২৫ সেপ্টেম্বর – বলিউড অভিনেতা শ্রেয়া ধন্বন্তরি অনেকেরই কাছে অচেনা। ইমরান হাশমির বিপরীতে ‘হোয়াই চিট ইন্ডিয়া’ ছবি দিয়ে বলিউডে পা রাখলেও এরপর খুব বেশি ছবিতে অভিনয় করা হয়নি তাঁর। কিন্তু পরবর্তী সময়ে অ্যামাজন প্রাইম শোর ‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান’ সিরিজে গোয়েন্দা অফিসারের ভূমিকায় অভিনয় করে এসেছিলেন আলোচনায়। এরপর তিনি ‘স্ক্যাম ১৯৯২: দ্য হর্ষদ মেহতা স্টোরি’তে সাংবাদিক চরিত্রে দেখিয়েছেন তাঁর অভিনয়দক্ষতা।

‘মুম্বাই ডায়েরিজ’ সিরিজেও সাংবাদিকের ভূমিকা পালন করেছেন শ্রেয়া ধন্বন্তরি। এই সিরিজেও দর্শকদের মুগ্ধ করেছে তাঁর অভিনয়। একাধারে গুরুত্বপূর্ণ সিরিয়াস চরিত্রে দেখা যায় এই অভিনেত্রীকে। তাই তো ভারতীয় গণমাধ্যমকে তিনি বলেছিলেন, ‘সবাই আমাকে দেখলে তাকিয়ে থাকে আর বলে, “ও তুমি! খুবই সিরিয়াস। তোমাকে সিরিয়াস চরিত্রে আমরা নেব।”’ কিন্তু এখন তিনি আগ্রহী মজার ও হাস্যকর চরিত্রে অভিনয় করতে।

গতকাল শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে ছবি ‘চুপ: রিভেঞ্জ অব দ্য আর্টিস্ট’। এই ছবিতেও সাংবাদিক চরিত্রে দেখা যাবে শ্রেয়া ধন্বন্তরিকে। এই ছবিতে কাস্টিংয়ের আগের এক মজার ঘটনা বলিউড হাঙ্গামাকে শেয়ার করেছিলেন এই অভিনেত্রী।

তিনি বলেন, ‘পরিচালক বাল্কি এই চরিত্রের জন্য আমার কাছে আসে। তারপর যখন গল্প বলে, তখন আমার ভালো লেগে যায়। আমি রাজি হয়ে যাই। তারপর আমি রুম থেকে বের হলে পরিচালক ছবির এক লেখককে বলেন, “আমার মনে হয়, এই চরিত্রের জন্য এই মেয়েই পারফেক্ট। তবে এই চরিত্রের জন্য আমি আরও একজনকে বিবেচনায় রেখেছিলাম। তার সঙ্গে কথা বলা দরকার।”

তখন সেই লেখক জানতে চান, অন্য মেয়েটা কে? তখন তিনি বলেন, “আমি চেয়েছিলাম, হয় ‘স্ক্যাম ১৯৯২: দ্য হর্ষদ মেহতা স্টোরি’র নতুন মেয়েটা, নয়তো ‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান’–এর আলোচিত মেয়েটা।”

‘পরিচালক বাল্কিকে লেখক বলেন যে তাঁরা একই মেয়ে। তখন পরিচালক বলেন, “তাহলে তো আমি ভালো সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তার মানে এই চরিত্রের জন্য একমাত্র পছন্দ ছিলেন শ্রেয়া ধন্বন্তরি।”’ সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার ছবি ‘চুপ: রিভেঞ্জ অব দ্য আর্টিস্ট’–এ শ্রেয়া ধন্বন্তরি ছাড়াও অভিনয় করেছেন দুলকার, সানি দেওল, পূজা ভাট প্রমুখ।

আইএ/ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button