ইউরোপ

শেষ হলো প্রচারণা, রোববার ভোট ইতালিতে

রোম, ২৪ সেপ্টেম্বর – ইতালিতে আগামীকাল রোববার ( ২৫ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সংসদীয় নির্বাচন। এরই মধ্যে রাজনৈতিক নেতারা এই গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনের আগে তাদের প্রচারাভিযান শেষ করেছেন। স্থানীয় সময় শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) প্রচারণা নিষিদ্ধ করা হয়।

চলমান ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের পরিপ্রেক্ষিতে এই নির্বাচনকে গুরুত্বপূর্ণ বলে ধরা হচ্ছে। জনমত জরিপে উঠে এসেছে এবারের নির্বাচনে জয়ী হতে পারেন ডানপন্থীরা। জানা গেছে, ব্রাদার্স অব ইতালি দলটির প্রধান জর্জিয়া মেলোনি এগিয়ে রয়েছেন নির্বাচনী দৌড়ে। তার প্রতিদ্বন্দ্বী জিউসেপ কন্তে সমর্থকদের বলেছেন ভোটটি ঐতিহাসিকভাবে তাৎপর্যপূর্ণ।

ভ্লাদিমির পুতিন ২০১৮ সালে চতুর্থ মেয়াদে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। ওই সময় পুতিনকে অভিনন্দন জানাতে ব্রাদার্স অব ইতালি দলের প্রধান জর্জিয়া মেলোনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিখেছিলেন, ‘রাশিয়ার এই নির্বাচন জনগণের ইচ্ছার দ্ব্যর্থহীন প্রতিফলন’।

ইউরোপ ও রাশিয়া যুদ্ধের জন্য এই নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ মনে হলেও ভোটাররা দেখবেন জ্বালানির মূল্য সাশ্রয়ের বিষয়টি, যেখানে এখন খরচ আকাশচুম্বী।

গৃহস্থালির এবং ব্যবসার জন্য বিল বাড়ছে দেশটিতে। অস্টিয়ার সমুদ্র সৈকত সংলগ্ন শহরে ছোট জেলেটেরিয়া থেকে আইসক্রিম বিক্রি করে করেন অড্রে। তিনি বলেন যে তার জ্বালানি তেলের বিল প্রতি মাসে তিনগুণ বেড়ে ৫ হাজার ৩৫০ ইউরো হয়েছে।

মারিও দ্রাঘির অধীনে বিদায়ী জাতীয় ঐক্য সরকার এরইমধ্যে ইতালীয়দের সাহায্য করার জন্য ৫৯ বিলিয়ন দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

কিন্তু, অস্টিয়ার সমুদ্রের ধারে, এরিকা অভিযোগ করেন যে তার কেনাকাটার বিল চরমে পৌঁছেছে।

এই নির্বাচনে জয়ের মধ্য দিয়ে মেলোনি ইতালির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। মাত্তেও সালভিনির লিগ এবং সিলভিও বেরলুসকোনির ফোরজা ইতালিয়াকে নিয়ে ডানপন্থী সরকার গঠন করতে পারে দলটি তার দল।

মেলোনি বিলিয়ন ডলার ট্যাক্স কমানো ও যারা এক লাখ ইউরোর চেয়ে কম আয় করেন তাদের জন্য ফ্ল্যাট ট্যাক্সের ব্যবস্থা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

তবে চলতি সপ্তাহে ইতালির একজন ব্রাদার্স (এফডিআই) প্রার্থীকে হিটলার ও ভ্লাদিমির পুতিনের প্রশংসা করার জন্য বরখাস্ত করা হয়েছিল।

এদিকে, মেলোনির মূল প্রতিদ্বন্দ্বী মধ্য-বাম ডেমোক্রেট পার্টির নেতা এনরিকো লেত্তাও কম না। তিনি বলেছেন, ‘জর্জিয়া মেলোনি জয় পেলে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে যারা খুশি হবেন, তারা হলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প, ভ্লাদিমির পুতিন এবং ইউরোপের ভিক্টর অরবান।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button