পশ্চিমবঙ্গ

দলের লোকেরা কেন দূরে বদলি, শিক্ষামন্ত্রীকে চিঠি, ব্রাত্য বললেন, কে ইনি? চিনতে পারছি না তো

কলকাতা, ২৪ সেপ্টেম্বর – বিভিন্ন দাবিদাওয়া নিয়ে এ বার রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে চিঠি দিল শাসক দলের প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠন। সভাপতি অশোক রুদ্রের সই করা সেই চিঠিতে বিভিন্ন বিষয়ের পাশাপাশি দাবি করা হয়েছে, প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষকদের সংখ্যায় সামঞ্জস্য আনতে অনেককেই বহু দূরবর্তী স্কুলে বদলি করা হয়েছে। তার মধ্যে বেশির ভাগই তৃণমূল দল বা দলের কোনও সংগঠনভুক্ত। শিক্ষকদের বেতনবৃদ্ধিরও দাবি জানানো হয়েছে চিঠিতে। শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে ওই চিঠি সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘‘তৃণমূল ভবনে তো অনেকেই আসেন। কে এই অশোক রুদ্র? ঠিক চিনতে পারছি না তো!’’

পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সংগঠনের তরফ থেকে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে। সেই চিঠিতে নিজেদের বিভিন্ন দাবিদাওয়া পেশ করেছেন সভাপতি অশোক। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য, প্রধান শিক্ষক প্যানেল তৈরির আবেদন, শিক্ষকদের স্বাস্থ্যসাথীর পরিবর্তে ওয়েস্ট বেঙ্গল হেলথ স্কিমের আওতায় আনা প্রভৃতি। তবে নজর কেড়েছে চিঠির তৃতীয় এবং দশম পয়েন্ট। তৃতীয় পয়েন্টে লেখা হয়েছে, ‘‘সম্প্রতি রাজ্য জুড়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলিতে ‘সারপ্লাস অ্যাডজাস্টমেন্ট’ হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, বেশির ভাগ ক্ষেত্রে আমাদের দল বা সংগঠনের লোকেদের অনেক দূরবর্তী স্কুলে বদলি করা হয়েছে।’’ দশম পয়েন্টে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন সংক্রান্ত আর্থিক বিষয়গুলি দ্রুততার সঙ্গে বিবেচনার আবেদন করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে যদিও চিঠিতেই স্বীকার করা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের জনবিরোধী আর্থিক নীতির জন্যই রাজ্য অর্থ সঙ্কটে পড়েছে।

সংগঠনের সভাপতি অশোক বলেন, ‘‘আমরা শিক্ষামন্ত্রীর কাছে প্রাথমিক শিক্ষকদের কিছু দাবিদাওয়া তুলে দিয়েছি। রাজ্যের বহু প্রাথমিক স্কুলে প্রধান শিক্ষকের কাজ চালাতে হচ্ছে টিচার ইন চার্জকে। তা বদলে সমস্ত স্কুলে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের দাবি শিক্ষামন্ত্রীর কাছে জানিয়েছি।’’ শাসক দলের প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের দাবি, শিক্ষামন্ত্রী মন দিয়ে সমস্ত দাবিদাওয়ার কথা শুনেছেন এবং আশ্বাস দিয়েছেন তা খতিয়ে দেখার।

সূ্ত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা অনলাইন
আইএ/ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button