শিক্ষা

ঢাবির হলে ঘুমের মধ্যে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর – ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) জগন্নাথ হলে ঘুমের মধ্যে অমিত সরকার নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে অচেতন অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অমিত বিশ্ববিদ্যালয়ের লেদার ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউটের ২০১৩-১৪ সেশনের শিক্ষার্থী ছিলেন। তার বাবার নাম চিত্তরঞ্জন সরকার। তার বাড়ি যশোরের কোতোয়ালী উপজেলার বালিয়াঘাট গ্রামে।

অমিতের রুমমেট সজিব মিত্র বলেন, আমরা জগন্নাথ হলের ৪০১১ নম্বর রুমে থাকতাম। গতকাল রাতে অমিত দেড়টার দিকে ঘুমাতে যায়। আজ বেলা সাড়ে দশটার দিকে তাকে ঘুম থেকে জাগানোর চেষ্টা করি। কোন সাড়া না পেয়ে পরে আমরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মিহির লাল সাহা বলেন, রাতে খাওয়া শেষ করে অমিত ঘুমিয়েছিল। সকালে তার বন্ধুরা তাকে ঘুম থেকে উঠার জন্য ডাকলে কোনো সাড়া দিচ্ছিল না। অনেক চেষ্টা করেও তাকে ঘুম থেকে তুলতে না পেরে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং আমাকে জানায়। পরে চিকিৎসক প্রাথমিক পরীক্ষা শেষে জানায় অমিত ঘুমের মধ্যেই মারা গিয়েছেন। আমরা তার পরিবারকে বিষয়টি জানিয়েছি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া বলেন, ‘জরুরি বিভাগে শিক্ষার্থীকে আনা হয়েছিল। ঘুমের মধ্যে তিনি মারা যান। প্রাথমিকভাবে তার মৃত্যুর কারণ শনাক্ত করা যায়নি। এটিকে স্বাভাবিক মৃত্যুই মনে হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

সূত্র: সমকাল
আইএ/ ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button