জাতীয়

সরকার রাষ্ট্র ব্যবস্থাকে দলীয়করণের মাধ্যমে ভাগ করে ফেলেছে: ফখরুল

ঢাকা, ১৭ সেপ্টেম্বর – সরকার রাষ্ট্র ব্যবস্থাকে ‘দলীয়করণ’ করে ভাগ করে ফেলেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) কার্যালয়ে এক আলোচনা সভায় তিনি এই অভিযোগ করেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য প্রয়াত গাজী মাজহারুল আনোয়ারের স্মরণে ‘ড. খন্দকার মোশাররফ ফাউন্ডেশনে’র উদ্যোগে এই আলোচনা সভা হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমি মাঝে মধ্যে বলি যে, সময়টা মনে হয় যেন একটা নষ্ট সময়। সব কিছুকে এরা (সরকার) নষ্ট করে ফেলছে। আপনি বিচারালয় যান বিচার পাবেন না, আপনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীর কাছে যাবেন নিরাপত্তা জন্য সেখানে নিরাপত্তা পাবেন না। আগে বলবে- তুমি বিএনপি করো না আওয়ামী লীগ করো? যদি বিএনপি করো কিছু হবে না, উপরন্তু আপনার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে দেবে। এই ঢাকা দক্ষিণে ছাত্রদলের তিন ছেলে তারা রাতে বাসায় যাচ্ছিল ওই সময়ে তাদের আক্রমণ করে আহত করা হয়েছে। মামলা দিতে গেছে ওদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সরকার গোটা জাতিকে বিভক্ত করে ফেলেছে। এমন এটা জায়গা পাবেন না সেখানে আপনি দেখবেন যে, বিভক্তি নেই। সবখানে এই আওয়ামী লীগ আর বাকী সব বিরোধী এই একটা ভাগ তিনি করে ফেলেছেন।
‘মসজিদের কমিটি সেখানে ভাগ, স্কুলের কমিটি সেখানেও ভাগ, মাদ্রাসার কমিটি সেখানেও ভাগ, গানের স্কুলে সেখানেও ভাগ, বিশ্ববিদ্যালয়েও সেখানে ভাগ, কলেজেও ভাগ- সবখানে ভাগ। এই যে বিভক্তি জাতিকে কখনও সামনের দিকে নিয়ে যাবে না’।

মির্জা ফখরুল বলেন, রাজনৈতিক অঙ্গনটাই কেমন যেন নষ্ট হয়ে গেছে একদম, কলুষিত হয়ে গেছে। কোথায় ভালো জিনিস আছে বলেন? আজকে এটা তো সত্য কথা যে, বাংলাদেশের রাজনৈতিক কাঠামোটা-এটা ভেঙ্গে পড়েছে।

তিনি আরও বলেন, দেশকে রক্ষা করতে হবে। এটা কী একা বিএনপির দায়িত্ব। সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। আমাদের ভবিষ্যৎ বংশধরদের জন্য সুন্দর আবাসভূমি তৈরি করতে পারছি না, যেখানে শান্তির সঙ্গে তারা একটা মুক্ত রাষ্ট্রে মুক্ত সমাজে বাস করবে সেরকম কোনও পরিবেশ আমরা তৈরি করতে পারছি না। এর জন্য দায়ী সম্পূর্ণ আজকের শাসকগোষ্ঠী।

গাজী মাজহারুল আনোয়ারকে বাতিঘর হিসেবে অভিহিত করে মির্জা ফখরুল বলেন,‘তিনি আমাদের সামনে একটা নক্ষত্রের মতো ছিলেন, বাতিঘর। আমরা এই ধরনের মানুষ আর পাবো না।

প্রয়াত গাজী মাজহারুল আনোয়ারের বর্ণাঢ্য জীবন-কর্ম তুলে ধরেন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
আইএ/ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button