জাতীয়

ডেঙ্গুতে মৃত্যু নিয়ে উদ্বিগ্ন সরকার

ঢাকা, ১৫ সেপ্টেম্বর – এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এসময়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৩৯৫ ডেঙ্গুরোগী। এ নিয়ে সারাদেশে মোট এক হাজার ৩১১ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এ বছর ২১ জুন থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মোট মৃত্যু হয়েছে ৪০ জনের। দেশে ডেঙ্গুতে মৃত্যুর পরিসংখ্যান দেখে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে এক সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন। সারাদেশে মশাবাহিত রোগ প্রতিরোধে সিটি করপোরেশন ও অন্যান্য মন্ত্রণালয়, বিভাগ, দপ্তর ও সংস্থার পর্যালোচনার জন্য দুপুর ২টায় স্থানীয় সরকার বিভাগের সম্মেলন কক্ষে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শুরু হয়। সভা শেষে ডেঙ্গুতে মৃত্যুর পরিসংখ্যান জানান স্থানীয় সরকার মন্ত্রী।

অন্যদের সঙ্গে তুলনা করে আত্মতুষ্টিতে ভুগছেন কি না সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আত্মতুষ্টির বিষয় নয়। আমরা ব্যথিত, দুঃখিত ও উদ্বিগ্ন, যে কারণে আজ এখানে বসা। নইলে তো হঠাৎ করে এক মাসের ব্যবধানে আমাদের এখানে বসার দরকার ছিল না। আমরা উদ্বিগ্ন, আমাদের কাছে এটি দুঃখজনক। একজন মানুষেরও মৃত্যু কেন হবে?

তিনি বলেন, বিভিন্ন দেশের সঙ্গে আমি কমপেয়ার করেছি। সিঙ্গাপুরের মতো দেশ কি চেষ্টা করে না? ভিয়েতনামের মতো দেশ কি চেষ্টা করে না? ফিলিপাইনের মতো দেশ, তাদের দেশের ইনকাম আমাদের থেকে বেশি। সে সমস্ত কারণে আমরা এ তুলনাটি করেছি।

সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, এডিস মশার ডিম দুই বছর পর্যন্ত থেকে যেতে পারে।

সিটি করপোপরেশনের সাম্প্রতিক উচ্ছেদ অভিযান প্রসঙ্গে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, সিটি করপোরেশনগুলো মানুষের জন্য কল্যাণকর।

হাঁটাচলার পথ এবং রাস্তার ওপরে হকারদের বসানো দোকানের বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ১৯৯০ অথবা ১৯৯১ সাল থেকে বসে। তবে এটাকে আমরা সমর্থন করি না। ফলে মেয়র সাহেবরা এখানে উদ্যোগ নিচ্ছেন।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
আইএ/ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button