ঢাকা

৯৬ ভরি স্বর্ণ ডাকাতি: স্ত্রীসহ কনস্টেবলের স্বীকারোক্তি

ঢাকা, ১২ সেপ্টেম্বর – ঢাকার কেরানীগঞ্জের জিনজিরা থেকে ৯৬ ভরি স্বর্ণ ডাকাতির ঘটনায় করা মামলায় গ্রেফতার রাজধানীর লালবাগ থানার পুলিশ কনস্টেবল মুন্সি কামরুজ্জামান ও তার স্ত্রী নাহিদা নাহার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন।

সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) তাদের আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর স্বর্ণ ডাকাতির ঘটনায় করা মামলায় স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হন তারা।

পরে ঢাকার সিনিয়র চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজীব হাসান আসামি কামরুজ্জামান ও ঢাকা সিনিয়র চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাবেয়া বেগম আসামি নাহিদা নাহারের জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

ঢাকার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউর আনোয়ারুল কবীর বাবুল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে শনিবার কামরুজ্জামানকে গ্রেফতার করে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ। এরপর তার স্ত্রী নাহিদা নাহারকেও গ্রেফতার করে থানা পুলিশ।

গত ৯ আগস্ট মানিকগঞ্জের সিংগাইরের এক ব্যবসায়ী ৯৬ ভরি স্বর্ণ নিয়ে কেরানীগঞ্জের জিনজিরা হয়ে রাজধানীর তাঁতীবাজার যাচ্ছিলেন। জিনজিরা এলাকায় পৌঁছালে ওই ব্যবসায়ীকে পুলিশ পরিচয়ে আটক করে কনস্টেবল কামরুজ্জামানসহ কয়েকজন।

পরে তাকে অন্যত্র নিয়ে স্বর্ণ লুটে নেয় তারা। এ ঘটনায় কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা করেন স্বর্ণ ব্যবসায়ী। মামলার তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ কনস্টেবল কামরুজ্জামানের সম্পৃক্ততা পাওয়ায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/১২ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button