এশিয়া

উষ্ণতম আগস্টের সাক্ষী হলো চীন

বেইজিং, ০৬ সেপ্টেম্বর – চীনে কয়েক সপ্তাহের টানা দাবদাহে শুকিয়ে গেছে অনেক নদ-নদী, নষ্ট হয়েছে বিস্তীর্ণ জমির ফসল। বাড়তি চাহিদার মধ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদন কমে যাওয়ায় লোডশেডিং দেখা দিয়েছে বহু জায়গায়। আর এ সব কিছুর জন্য দায়ী উত্তপ্ত তাপমাত্রা। মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, দেশটিতে রেকর্ড রাখা শুরুর পর থেকে উষ্ণতম আগস্ট মাস ছিল গত মাসে।

রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম সিসিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মাসে তীব্র তাপমাত্রায় পুড়েছে চীনের দক্ষিণাঞ্চল। বিশেষজ্ঞদের মতে, এটি ছিল গোটা বিশ্বের ইতিহাসেই অন্যতম ভয়ংকর দাবদাহ। এসময় সিচুয়ান প্রদেশের কিছু অংশ এবং চংকিং শহরে টানা কয়েকদিন তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপর।

চীনা আবহাওয়া সংস্থার বরাতে খবরে জানানো হয়েছে, গত আগস্টে চীনজুড়ে গড় তাপমাত্রা ছিল ২২ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দেশটির প্রায় ২৬৭টি আবহাওয়া কেন্দ্রে গত মাসে অতীতের সর্বোচ্চ তাপমাত্রার সমান অথবা তারচেয়েও বেশি তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

এছাড়া, গত মাস ছিল চীনের ইতিহাসে তৃতীয় শুষ্কতম আগস্ট। এ মাসে দেশটিতে গড়ের চেয়ে অন্তত ২৩ দশমিক ১ শতাংশ বৃষ্টিপাত কম হয়েছে।

চীনের আবহাওয়া সংস্থা বলেছে, গত আগস্ট মাসে উচ্চ-তাপমাত্রাযুক্ত দিনের গড় সংখ্যা অস্বাভাবিকভাবে বেশি ছিল। আঞ্চলিক উচ্চ-তাপমাত্রার প্রক্রিয়াগুলো দেশে প্রভাব ফেলছে।

বিজ্ঞানীদের মতে, দাবদাহ, খরা, আকস্মিক বন্যার মতো বিরূপ আবহাওয়া ক্রমেই নিয়মিত হয়ে উঠছে। এর জন্য অনেকাংশে দায়ী মানবসৃষ্ট জলবায়ু পরিবর্তন।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button