সিলেট

ময়লার গাড়ির সক্ষমতা যাচাই করতে যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন মেয়র আরিফ

রাশেদুল হাসান

সিলেট, ০৬ সেপ্টেম্বর – সিলেট মহানগরীর নাগরিক সেবা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সেবা আধুনিকায়নের জন্য ১৫টি তিন টনের কম্পেক্টর ট্রাক, দুটি হুইল এক্সকেভেটর, দুইটি চেইনডোজার এবং একটি ২৫ টনের রেকার কিনেছে সিলেট সিটি করপোরেশন।

ক্যাটারপিলার ব্র্যান্ডের এক্সক্যাভেটর ও চেইন ডোজার মেশিনের সক্ষমতা যাচাই করতে আমেরিকায় অবস্থিত উৎপাদনকারী কোম্পানিটির কারখানা পরিদর্শন করবেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। সঙ্গে যাবেন তার স্ত্রী শামা হক চৌধুরী।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত সরকারি আদেশ সূত্রে জানা যায়, তার এ ভ্রমণের ব্যয় বহন করবে ঠিকাদারি কোম্পানি বাংলা ট্রাক। এ সফরের সময়সূচি ছিল ২৭-৩০ আগস্ট। তবে বিভিন্ন জটিলতা তা পিছিয়েছে বলে জানিয়েছেন সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান।

আর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী জানিয়েছেন, মেয়র ছাড়াও এ সফরে থাকবেন প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান, নির্বাহী প্রকৌশলী (বৈদ্যুতিক ও পরিবহন শাখা) রুহুল আলম, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা হানিফুর রহমান, সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) ও তথ্য কর্মকর্তা জয়দেব বিশ্বাস ও নির্বাহী প্রকৌশলী শামসুল আলম।

মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ও সরকারে যুগ্মসচিব মোহাম্মদ নূরে আলম সিদ্দিকীও যাবেন বলে জানিয়েছেন সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজ।

বিধায়ক রায় চৌধুরী বলেন, মেয়র ও তার স্ত্রীর সরকারি আদেশ হলেও বাকিদের হয়নি। তাই পিছিয়েছে এ সফর। তবে কাছাকাছি সময়ে তারা যাবেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রকৌশলী জানিয়েছেন, এ সফরে মূলত এ যন্ত্রগুলোর পরিচালনা, মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণে বিষয়ে প্রশিক্ষণ হবে।

তবে সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিবের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা যন্ত্রের সক্ষমতা যাচাই কিংবা প্রশিক্ষণের দরকার আছে কিনা সে বিষয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

বিষয়টি জানতে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকে ফোন করা হলে তার ব্যক্তিগত সহকারী জানিয়েছেন, তিনি অসুস্থ কথা বলতে পারবেন না। বিষয়টি প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে জিজ্ঞেস করলে তিনি এ বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানান।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
আইএ/ ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button