দক্ষিণ এশিয়া

পাকিস্তানে পেঁয়াজের কেজি ৩০০, আলু ১০০

ইসলামাবাদ, ০৫ সেপ্টেম্বর – বন্যা-বিধ্বস্ত পাকিস্তানে টমেটো, আলু ও পেঁয়াজের আকাশছোঁয়া দাম খাদ্যদ্রব্যকে নিয়ে গেছে সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে। অর্থনৈতিক সংকটে বিপর্যস্ত দেশটিতে মূল্যস্ফীতি ৩০ শতাংশে পৌঁছায় জনজীবনে নেমে এসেছে বিপর্যয়। এই সংকট সামলাতে কর্তৃপক্ষ আরও কঠোর আর্থিক বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

আজ সোমবার এক প্রতিবেদনে নিউইয়র্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ জানিয়েছে, গত পাঁচ দশকের মধ্যে এবারই প্রথম বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের ভয়াবহ সংকট এবং দ্রুততম মুদ্রাস্ফীতিতে ভুগছে পাকিস্তান। এ ছাড়া বর্ষা মৌসুমের শুরুতে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে সৃষ্ট বন্যায় এক-তৃতীয়াংশ তলিয়ে যাওয়ায় খাদ্য সংকটের মুখোমুখি হয়েছে দেশটি।

বন্যায় এখন পর্যন্ত দেশটির ৮০টি এলাকাকে দুর্যোগ-কবলিত হিসেবে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতির অবনতি ঘটায় সেই তালিকায় যুক্ত হয়েছে আরও আটটি জেলার নাম।

ব্লুমবার্গ জানিয়েছে, বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ইন্দুস নদীর পশ্চিম তীরের কাছের শহর দাদু। সেখানে ব্যাহত হয়েছে চাল ও পেঁয়াজ উৎপাদন। আশ্রয় শিবিরের এক বাসিন্দা জানান, বন্যার আগে সেখানে পেঁয়াজের কেজি ছিল ৫০ রুপি, এখন যা ৩০০ রুপিতে বিক্রি হচ্ছে। তবে শুধু পেঁয়াজই নয়, দেশটিতে আলু, টমেটো, ঘিয়ের দামও আকাশচুম্বী হয়েছে।

বর্তমানে পাকিস্তানে আলুর দাম চার গুণ বেড়ে প্রতি কেজি ১০০ রুপিতে বিক্রি হচ্ছে। টমেটোর দাম বেড়েছে ৩০০ শতাংশের বেশি। প্রতি কেজি টমেটো বিক্রি হচ্ছে ৪০০ রুপিতে। এ ছাড়া ঘিয়ের দাম বেড়েছে ৪০০ শতাংশের বেশি। খাদ্যসামগ্রী মজুতের গুদাম প্লাবিত হওয়ায়দুধ ও মাংসের সরবরাহও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্লুমবার্গ।

সূত্র: আমাদের সময়
এম ইউ/০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button