রাজশাহী

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে ইডেনের ছাত্রী

রাজশাহী, ৩ সেপ্টেম্বর – বিয়ের দাবিতে রাজশাহীতে প্রেমিকের বাড়িতে এসেছেন ইডেন কলেজের এক ছাত্রী। দীর্ঘ চার বছর তাদের প্রেম চলছিলো বলে দাবি ওই কলেজছাত্রীর। শনিবার ফেসবুকে বিষয়টি ভাইরাল হলে চাঞ্চল্য তৈরি করে।
ওই প্রেমিকের নাম জুয়েল রানা (২৫)। তিনি রাজশাহীর তানোর উপজেলার চান্দুড়িয়া গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে। ঢাকায় একটি ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করেন তিনি। বর্তমানে তিনি ঢাকাতেই আছেন।

আর প্রেমিকার নাম আয়শা আক্তার রুমি (২৩)। ওই মেয়ে জন্মসূত্রে বরিশালের হলেও পড়াশোনার সুবাদে ঢাকায় থাকেন। ঢাকা ইডেন মহিলা কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ছাত্রী। পড়াশোনার পাশাপাশি গুলশানে আড়ংয়ের শোরুমে পার্টটাইম চাকরি করেন তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত রোববার (২৮ আগস্ট) জুয়েল রানার গ্রামের বাড়িতে আসেন ওই তরুণী। সেখানে তিনদিন অনশন করায় অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তবে চিকিৎসা শেষে বর্তমানে তিনি সুস্থ রয়েছেন। মেয়ের পরিবারে যোগাযোগ করা হলেও সাড়া মিলছে না বলে জানায় থানা পুলিশ।

সম্প্রতি ওই ছেলে রাজশাহী নগরীর নওদাপাড়া এলাকার এক মেয়েকে বিয়ে করেছেন। বিষয়টি জানতে পেরে ওই মেয়ে ছেলের কাছে আসতে চাইলে প্রেমের সম্পর্ক অস্বীকার করেন। বাধ্য হয়ে জুয়েলের গ্রামের বাড়িতে আসেন ওই তরুণী।

ভুক্তভোগী মেয়ে জানান, বছর চারেক আগে রাজধানীর হাতিরঝিলে একটা গানের অনুষ্ঠানে তাদের পরিচয় হয়। যা একপর্যায়ে প্রেমের সম্পর্কে গড়ায়। বিয়ের পরেও ওর (জুয়েল) সঙ্গে দেখা হয়েছে। আমি তাকে বিয়ে করতে চাই। তার আগের বউ থাকলেও আমার আপত্তি নেই।

বিষয়টি নিশ্চিত করে তানোর থানার ওসি কামরুজ্জামান মিয়া বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে তানোর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়ের বাসায় যোগাযোগ করে তাদের আসতে বলা হয়। কিন্তু পরে তাদের আর সাড়া পাওয়া যায়নি।

যেহেতু পুরো ঘটনা ঢাকায় ঘটেছে, আর ছেলেও বর্তমানে ঢাকায় আছে তাই আমাদের আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার সুযোগ নেই। ওই মেয়েকে বলা হয়েছে যেন ঢাকায় যায় কিন্তু না গেলে তো আমাদের কিছু করার নেই।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ
আইএ/ ৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button