জাতীয়

তুরস্ক থেকে আনা ২শ’ টন পেঁয়াজ বন্দরেই পচে গেল

চট্টগ্রাম, ০২ সেপ্টেম্বর – তুরস্ক থেকে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) আমদানি করা ২০০ টন পেঁয়াজ পচে যাওয়ায় ফেলে দেওয়া হয়েছে নগরীর ইপিজেড এলাকায় টিসিবি কার্যালয়ের পাশের পুকুর পাড়ে। এতে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে আশপাশের এলাকায়।

টিসিবি সূত্রে জানা যায়, তুরস্ক থেকে ১১ লট পেঁয়াজ আমদানির পর চট্টগ্রাম বন্দরে আসা জাহাজে এক মাস ধরে রয়ে যায় এই পণ্য। পচনশীল পণ্য জরুরি ভিত্তিতে খালাসের নিয়ম থাকলেও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান সময়মতো কাগজপত্র দাখিল করতে না পারায় পেঁয়াজগুলো খালাস করতে পারেনি টিসিবি। এতে প্রায় ২০০ টন পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে গেছে।

গত বুধবার (৩১ আগস্ট) রাতে পচা পেঁয়াজ বাছাই করে ফেলে দেওয়া হয়। এসব পেঁয়াজের বাজারমূল্য প্রায় ৫০ লাখ টাকা। টিসিবি’র দাবি, এর দায়ভার তুরস্কের রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানকেই নিতে হবে।

এদিকে পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে যাওয়ার কারণে টিসিবির ন্যায্যমূল্যের দোকানে মিলছে না এ পণ্যটি। ট্রাক থেকে কেনা পেঁয়াজও পচা পেয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন সাধারণ ভোক্তারা।

টিসিবি চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কার্যালয়ের ঊর্ধ্বতন কার্যনির্বাহী (অফিস প্রধান) জামাল উদ্দিন আহমেদ জানান, বাছাই করে খাবার অযোগ্য পেঁয়াজগুলো আলাদা করা হয়। শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) এগুলো পুঁতে ফেলা হচ্ছে। গন্ধ না ছড়ানোর জন্য ব্লিচিং পাউডার ছিটিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি ছিল, তারা যত টন ভালো পেঁয়াজ দিতে পারবে সেগুলোই গুদামে রাখা হবে এবং তত টন পণ্যের বিল পরিশোধ করা হবে। পেঁয়াজ নষ্ট হওয়ায় সরকার বা টিসিবির এক টাকাও ক্ষতি নেই।

সূত্র: বাংলানিউজ
এম ইউ/০২ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button