জাতীয়

৫ লাখ টাকা পেলেন সেই জাহালম

ঢাকা, ০১ সেপ্টেম্বর – অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় বিনা অপরাধে তিন বছর কারাভোগ করা পাটকলশ্রমিক জাহালমের কাছে পাঁচ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করেছে ব্র্যাক ব্যাংক। সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতের নির্দেশনা আজ বৃহস্পতিবার এ চেক তুলে দেয়। ব্র্যাক ব্যাংকের পক্ষে জাহালমের কাছে এই চেক হস্তান্তর করেন আইনজীবী মো. আসাদুজ্জামান।

জাহালমের বড় ভাই শাহানূর বলেন, আইনজীবীর কাছ থেকে চেক হস্তান্তরের খবর পেয়ে তিনি জাহালমকে সঙ্গে নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট চত্বরে যান। পরে ব্র্যাক ব্যাংকের পক্ষ থেকে আইনজীবী মো. আসাদুজ্জামান জাহালমের কাছে পাঁচ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করেন।

চেক পেয়ে জাহালম বলেন, ‘আদালতের কাছ থেকে আমি ন্যায়বিচার পেয়েছি।’

এর আগে গত সোমবার আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত জাহালমকে সাত দিনের মধ্যে পাঁচ লাখ টাকা দিতে ব্র্যাক ব্যাংককে নির্দেশ দেন। সেদিন চেম্বার আদালত জাহালমকে সাত দিনের মধ্যে পাঁচ লাখ টাকা দেওয়ার শর্তে ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেন। আদেশে আদালত বলেছিলেন, এই সময়ের মধ্যে অর্থ পরিশোধ না করা হলে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার হয়ে যাবে।

বিনা অপরাধে জেল খাটা জাহালমকে ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে ২০২০ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর রায় দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। হাইকোর্টের রায়ের ৮৮ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি সম্প্রতি প্রকাশিত হয়।

২০১৯ সালে একটি জাতীয় দৈনিকে ‘৩৩ মামলায় “ভুল” আসামি জেলে: “স্যার, আমি জাহালম, সালেক না…”’শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনটি নজরে আনা হলে হাইকোর্ট স্বতঃপ্রণোদিত রুলসহ আদেশ দিয়েছিলেন। আদালতের ওই বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি কারাগার থেকে মুক্তি পান জাহালম।

সূত্র: আমাদের সময়
এম ইউ/০১ সেপ্টেম্বর ২০২২

Back to top button