পশ্চিমবঙ্গ

বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ ঝাড়লেন মমতা ব্যানার্জী

কলকাতা, ৩১ আগস্ট – ইডি-সিবিআই দিয়ে বিজেপি যা খুশি তাই করছে। এটা প্রতিহিংসা না প্রকাশ্যে হিংসা। আমি সমাজসেবা করার জন্য রাজনীতিতে এসেছি। এসব নোংরা রাজনীতি দেখলে, অনেক আগেই রাজনীতি থেকে বিদায় নিতাম। বুধবার (৩১ আগস্ট) নবান্নে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী এসব কথা বলেন।

মমত ব্যানার্জী বিজেপের উদ্দেশ্য বলেন, সব কয়লার টাকা নাকি কালীঘাটে যাচ্ছে! কার কাছে যাচ্ছে মা কালীর কাছে যাচ্ছে? নামটা বলুন না একবার। উত্তর প্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, বিহার হয়ে গরু আসছে। ব্ল্যাকমেইল করা হচ্ছে। প্রমাণ না দিয়ে কেন অমর্যাদাকর কথা বলা হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমরা তো ১১ বছর ধরে ক্ষমতায় আছি। তার আগে কি হয়েছে? গরু, কয়লা তো স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন, আমাদের নয়। তিনি ক্ষোভের সঙ্গে বলেন তৃণমূল কংগ্রেস পরিবারটাকে কলঙ্কিত করবেন না। তাহলে কিন্তু আমরাও ছেড়ে কথা বলবো না। রক্ত হানাহানি পছন্দ না করার কথাও জানান তিনি।

আমাকে সেটিং করার জন্য অনেকে বসে থাকেন। আমি নই। আমি সেটিং করার মানুষ নই। আমার কাছে সেটিং করার জন্য অনেকে আসে। আমি নিজেকে যেখানে সেট করতে পারি না সেখানে সেটিং করবো কীভাবে। আমি দিল্লি গিয়েছিলাম প্রাপ্য চাইতে, সেটিং করতে নয়। রাজ্যের ভাগের টাকা দিচ্ছে না কেন্দ্রীয় সরকার।

বিএসএফ পরপর কতজনকে গুলি করে মারলো, ধর্ষণ করলো। তিনি বলেন, প্রতিদনিই তো বিলকিস বানু কেস হচ্ছে। কৃষকদের আন্দোলনে মন্ত্রী গুলি চালিয়ে মেরে দিচ্ছে।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আপনারা কি মনে করেন আমি কোনো স্বার্থের জন্য কাজ করি? আমি যে চেয়ারটায় বসে কাজ করি সেটা সাধারণ মানুষের জন্য। সাধারণ মানুষ না চাইলে আমি এক মিনিটে ছেড়ে দিয়ে চলে যাবো। আমি ইয়াং জেনারেশনকে তৈরি করছি।

সূত্র: জাগোনিউজ
আইএ/ ৩১ আগস্ট ২০২২

Back to top button