মধ্যপ্রাচ্য

সিরিয়ার ভূখণ্ড দখল করতে চায় না তুরস্ক

আঙ্কারা, ১৯ আগস্ট – সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে কুর্দিদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান জোরদারের পরিকল্পনা করলেও তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান দাবি করেছেন, সিরীয় কোনও ভূখণ্ড দখল করতে চায় না তুরস্ক। তুরস্কের সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনের বরাতে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি শুক্রবার এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানা গেছে।

সিরিয়ায় সরকারিবাহিনী পরিচালিত একটি সীমান্ত ফাঁড়িতে তুরস্কের বিমান হামলার কয়েক দিন পর এরদোয়ান এই মন্তব্য করলেন। ওই হামলায় ১৭ জন যোদ্ধা নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

যুদ্ধ পর্যালোচনাকারী একটি সংস্থা জানিয়েছে, তুর্কি অভিযানে নিহতদের মধ্যে সরকারি সেনা ও কয়েকজন কুর্দি নিহত হয়েছেন।

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, তিনজন সরকারি সেনা নিহত হয়েছে।

তুরস্ক দাবি করেছে, সীমান্তে তাদের অবস্থানে হামলায় দুই তুর্কি সেনা নিহতের পাল্টা পদক্ষেপ নিয়েছে তারা।

২০২০ সালে আঙ্কারা ও দামেস্ক পাল্টাপাল্টি হামলার পর এখন পর্যন্ত এটিই বৃহত্তম উত্তেজনাকর ঘটনা।

ইউক্রেন সফর শেষে তুরস্ক ফিরে এরদোয়ান পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করছেন বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। তিনি বলেন, সিরিয়ার ভূখণ্ডে আমাদের নজর নেই কারণ সিরিয়ার জনগণ আমাদের ভাই।

তিনি বলেন, সিরীয় শাসকদের এই বিষয়ে সচেতন থাকা দরকার।

দুই সপ্তাহ আগে রাশিয়ার সোচিতে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে বৈঠকের পর ইউক্রেন সফরে গিয়েছিলেন এরদোয়ান। পুতিনের সঙ্গে বৈঠকে সিরিয়া ইস্যুও স্থান পেয়েছে।

তুরস্ক সমর্থিক বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সিরিয়ার ১১ বছরের যুদ্ধে প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের টিকে থাকার পেছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল রাশিয়ার।

এরদোয়ান জানিয়েছেন, পুতিনকে তিনি বলেছেন চান উত্তর সিরিয়া নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠ সহযোগিতা চান।

এই উত্তরাঞ্চলে কুর্দিরা অবস্থান করছে। আঙ্কারা এদেরকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে ঘোষণা করেছে।

এরদোয়ান বলেন, সিরিয়ায় আমাদের প্রতিটি পদক্ষেপ নিয়ে আমার রাশিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করি।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
এম ইউ/১৯ আগস্ট ২০২২

Back to top button