অপরাধ

২ লাখ ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৬ নাগরিক আটক

কক্সবাজার, ১৬ আগস্ট – সেন্টমার্টিন ছেঁড়া দ্বীপ সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে সাগরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টেকনাফ বিশেষ জোন ও টেকনাফ কোস্টগার্ড সদস্যরা যৌথ অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় ১ লাখ ৭০ পিস ইয়াবাসহ ৬ জন মিয়ানমার নাগরিককে আটক করা হয়। এছাড়াও ইয়াবা পাচারে ব্যবহৃত একটি ফিশিং বোটও জব্দ করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার ভোরে সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপ থেকে ৩ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণ-পূর্বে বাংলাদেশ সীমানায় এ অভিযান চালানো হয়। অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক সিরাজুল মোস্তফা।

তিনি জানা, আজ ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপ থেকে মিয়ানমার সীমান্ত হতে একটি ফিশিং বোটকে বাংলাদেশ সীমানায় ঢোকার পর কোস্টগার্ড সদস্যরা তাদের ৪ রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করার পর তাদের থামায়। পরে বোটে তল্লাশি করে ১টি বস্তা থেকে ১ লাখ ৭০ হাজার পিস ইয়াবা ও ১টি সিমকার্ড বিহীন স্মার্টফোন (ভাঙ্গা), ইঞ্জিন চালিত কাঠের বোটসহ মিয়ানমারের ৬ নাগরিককে আটক করে।

আটককৃতরা হলেন, মিয়ানমারে আকিয়াব জেলার ঘাটিয়াখালি থানার মাস্টর দিল মোহাম্মদ প্রদিলা মাঝি এলাকার কেফায়েত উল্ল্যাহ (২২), মো. শরিফ (২৭), মো. হোছন (৩৮), ছৈয়দুর রহমান (৪৩), মো. হোছন (২৭) ও নুর হোসেন (২১)।

সিরাজুল মোস্তফা আরও জানান, জব্দকৃত ইয়াবা ও কাঠের বোটসহ আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে। তাদের টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

সূত্র: আমাদের সময়
এম ইউ/১৬ আগস্ট ২০২২

Back to top button