জাতীয়

ফের রাজনীতিতে সরব হচ্ছেন সোহেল তাজ

আবদুল্লাহ আল মামুন

ঢাকা, ১৩ আগস্ট – সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমদ সোহেল তাজ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় হচ্ছেন। ডিসেম্বরে অনুষ্ঠেয় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের আগেই তাকে দলীয় কর্মসূচিতে দেখা যাবে।

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে আলাপ করে তিনি রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার বিষয়ে মানসিক প্রস্তুতি নিয়েছেন। দলীয় সূত্র জানিয়েছে, তিনি আওয়ামী লীগের হাইকমান্ডের নির্দেশেই সক্রিয় হচ্ছেন। তাকে দলের আগামী কাউন্সিলে গুরুত্বপূর্ণ পদ দেওয়ার ব্যাপারে প্রাথমিক সিদ্ধান্তও হয়েছে।

এ ব্যাপারে তানজিম আহমদ সোহেল তাজ শুক্রবার বলেন, ‘আমি দলের (আওয়ামী লীগের) জন্য সর্বদা প্রস্তুত আছি। যে কোনো পরিস্থিতিতে দল যদি মনে করে, আমি অবদান রাখতে পারি-তাহলে আমাকে ডাকলে যাব। আমি আওয়ামী লীগের জন্য অতীতে প্রস্তুত ছিলাম, এখনো প্রস্তুত, ভবিষ্যতেও তৈরি থাকব।’

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। তার জ্বলন্ত উদাহরণ পদ্মা সেতু। এখন প্রয়োজন মানবিক উন্নয়ন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশের মানুষের একটা সুন্দর ভবিষ্যৎ গড়ার লক্ষ্যে দুর্নীতি এবং অনিয়মের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া প্রয়োজন। এটা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও চাচ্ছেন বলে আমি মনে করি। সেজন্য তার (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) পাশে যোগ্য ও নিবেদিত মানুষ প্রয়োজন, তাকে সহায়তা করার জন্য।’

বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের একমাত্র পুত্র তানজিম আহমদ সোহেল তাজ একটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে অভিমান করে প্রথমে মন্ত্রিত্ব পরে সংসদ সদস্য পদ ছাড়েন। এরপর তিনি রাজনীতি থেকেও দূরে সরে যান। তবে চুপচাপ ঘরে বসে ছিলেন না তিনি। প্রথম থেকেই বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। তার ছেড়ে দেওয়া গাজীপুরের কাপাসিয়া আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন তারই মেজ বোন সিমিন হোসেন রিমি।

বৃহস্পতিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমদ সোহেল তাজের ছোট বোন মাহজাবিন আহমদ মিমি।

এতে তিনি লেখেন, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আসন্ন কাউন্সিল অধিবেশনে তানজিম আহমদ (সোহেল তাজ) দলীয় নেতৃত্বে আসছেন ইনশাআল্লাহ। জয় বাংলা! জয় বঙ্গবন্ধু! জয়তু শেখ হাসিনা!! বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।’

মিমির এই ফেসবুক স্ট্যাটাসকে সোহেল তাজের রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার ব্যাপারে একটি আগাম ঘোষণা মনে করে স্বাগত জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের অসংখ্য নেতাকর্মী। বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার দিনভর মূলধারার গণমাধ্যমসহ ক্ষমতাসীন মহলের অন্দর মহলে বিষয়টি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল।

জানতে চাইলে মাহজাবিন আহমদ মিমি শুক্রবার বলেন, মন্ত্রিত্ব ও সংসদ-সদস্য পদ ছেড়ে দিলেও সোহেল তাজ সব সময় আওয়ামী লীগের সঙ্গে আছেন। সব জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠানে তিনি উপস্থিত থেকে দলের জন্য শুভ কামনা জানিয়েছেন।

গত ১০ বছর ধরেই সোহেল তাজ নিরবচ্ছিন্নভাবে দেশে অবস্থান করছেন। বর্তমান সময়টাকে আমরা দল ও দেশের জন্য একটি ‘ক্রান্তিকাল’ বলে মনে করছি। তাই এই ক্রান্তিকালে সক্রিয়ভাবে তার দলের পাশে থাকা প্রয়োজন।

সূত্র: যুগান্তর
আইএ/ ১৩ আগস্ট ২০২২

Back to top button