এশিয়া

চীনে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতের মৃত্যু, কারণ অজানা

বেইজিং, ০৮ আগস্ট – চীনে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত ইউ মিয়ো থান্ট পে’র মৃত্যু হয়েছে। রবিবার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় চীনা শহর কুনমিংয়ে তার মৃত্যু হয়। মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এবং বেইজিংয়ে কূটনৈতিক সূত্রের বরাতে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

সোমবার মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত শোক সংবাদে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রাষ্ট্রদূতের মৃত্যুর কোনও কারণ উল্লেখ করেনি।

বেইজিংয়ের কূটনীতিক ও মিয়ানমারের চীনা ভাষার একটি সংবাদমাধ্যমের খবরে মৃত্যুর কারণ হার্ট অ্যাটাক হতে পারে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুসারে, মৃত রাষ্ট্রদূতকে সর্বশেষ শনিবার মিয়ানমার সীমান্তবর্তী চীনা প্রদেশ ইউনানে স্থানীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করতে দেখা গেছে।

তাৎক্ষণিকভাবে চীনের মিয়ানমার দূতাবাস রয়টার্সের প্রশ্নের জবাব দেয়নি।

২০১৯ সালে চীনে রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ পান ইউ মিয়ো থান্ট পে। ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে মিয়ানমার সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখলের পরও তিনি দায়িত্ব পালন অব্যাহত রাখেন।

গত এক বছরে চীনের মৃত্যু হওয়া চতুর্থ রাষ্ট্রদূত তিনি। গত বছর সেপ্টেম্বরে মারা যান জার্মান রাষ্ট্রদূত জ্যান হ্যাকার। বেইজিংয়ে আসার দুই সপ্তাহের মধ্যে তার মৃত্যু হয়। ফেব্রুয়ারিতে বেইজিংয়ে শীতকালীন অলিম্পিক ভেন্যু পরিদর্শনের পর মৃত্যু হয় ইউক্রেনীয় রাষ্ট্রদূত সেরহি কামিশেভ।

এপ্রিলে চীনা প্রদেশ আনহুইতে কোয়ারেন্টিনে থাকা অবস্থায় মৃত্যু হয় ফিলিপাইনের রাষ্ট্রদূত হোসে সান্তিয়াগোর।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
এম ইউ/০৮ আগস্ট ২০২২

Back to top button