জাতীয়

হরতাল ডেকে সহিংসতা করলে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা, ৫ আগস্ট – স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, বিএনপি হরতাল ডাকতে পারে, ধর্মঘট ডাকতে পারে, আমাদের আপত্তি নেই। তবে হরতালের নামে ভাঙচুর ও রক্তারক্তি করলে নিরাপত্তা বাহিনী যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। আজ শুক্রবার (৫ আগস্ট) বিকেলে চট্টগ্রাম নগরের আন্দরকিল্লা সিটি করপোরেশন চত্বরে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ আয়োজিত শোকাঞ্জলি শীর্ষক এক কর্মসূচিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় তিনি বলেন, হরতালের নামে যদি অহেতুক যদি যানবাহন বন্ধ করে, জনগণের সমস্যা করলে নিরাপত্তা বাহিনী তাদের কাজটি সঠিকভাবে করবে। লোডশেডিংয়ের মানে এই নয় যে আমাদের ক্যাপাসিটি নেই। আমাদের পূর্ণ ক্যাপাসিটি আছে। এ অবস্থার একটু উন্নতি হলে আমরা আবার আগের পর্যায়ে চলে যাব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনেক দূরদর্শী নেতা। তিনি গ্যাসভিত্তিক, কয়লাভিত্তিক, সোলারভিত্তিক এবং নিউক্লিয়ারভিত্তিক পাওয়ার প্ল্যান্ট করছেন। তাই আমাদের কোনো সমস্যা হবে না।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার বিচার হয়েছে। খুনিদের কার্যকর আমরা দেখে যেতে চাই। এ হত্যাকান্ডে যারা খুনিদের ইন্ধন দিয়েছিল, তাদেরও জাতির সামনে তুলে ধরার চেষ্টা চলছে। খুনিরা ভালোভাবে জানত বঙ্গবন্ধুর রক্ত যার ধমনিতে প্রবহমান রয়েছে, তার কারণে তাদের একদিন বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। আজ তাই হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলায় স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও খাদ্যের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে তারই কন্যার হাত ধরে।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম নগরের কমান্ডার মোজাফ্ফর আহম্মদ। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। এ শোকাঞ্জলি অনুষ্ঠান ছয় দিনব্যাপী চলবে। মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের কেন্দ্রীয় নেতা সরোয়ার আলমের সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য শিরীণ আখতার ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান।

সূত্র: বিডি২৪
আইএ/ ৫ আগস্ট ২০২২

Back to top button