এশিয়া

পেলোসির বিদায়ের পর তাইওয়ানের চারপাশে সামরিক মহড়া চালাবে ক্ষুব্ধ চীন

বেইজিং, ০৩ আগস্ট – যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফর নিয়ে উত্তেজনার মধ্যে দ্বীপটির চারপাশে মহড়া চালানোর ঘোষণা দিয়েছে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ)।

বেইজিংভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিজিটিএন এ তথ্য জানায়।

চীনের প্রবল আপত্তি সত্ত্বেও মঙ্গলবার রাতে তাইওয়ান সফর করেন পেলোসিসহ একটি প্রতিনিধি দল। সফর শেষে তারা বুধবার দক্ষিণ কোরিয়ার উদ্দেশে দ্বীপটি ছেড়ে যান।

রোববার পেলোসির নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল এশিয়ার উদ্দেশে যুক্তরাষ্ট্র ত্যাগ করে। ওই প্রতিনিধি দল সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়া সফর শেষে তাইওয়ান আসে। এখন দলটি দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান সফর করবে।

এদিকে তাইওয়ানে পেলোসির সফরের প্রতিক্রিয়ায় চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র উ চিয়ান বলেন, ‘চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় উচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে এবং পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে সামরিক মহড়া চালানো হবে।’

জাতীয় সার্বভৌমত্ব এবং আঞ্চলিক অখণ্ডতাকে দৃঢ়ভাবে রক্ষা করা, বহিরাগত শক্তির হস্তক্ষেপ এবং ‘তাইওয়ানকে স্বাধীন’ করার জন্য বিচ্ছিন্নতাবাদীদের চক্রান্তকে দৃঢ়ভাবে ব্যর্থ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

পিএলএ ঘোষণা করেছে যে, বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) থেকে রোববার (৭ আগস্ট) পর্যন্ত তাইওয়ানের চারপাশে সামরিক মহড়া চালানো হবে। এর মধ্যে প্রশিক্ষণ কর্মসূচি ও লাইভ ফায়ার অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

মহড়া চলাকালে নিরাপত্তার জন্য এ অঞ্চলের সাগরে জাহাজ ও আকাশে যুদ্ধবিমানের প্রবেশ নিষিদ্ধ বলে জানানো হয় খবরে।

চীন তাইওয়ানকে নিজের ভূখণ্ড হিসেবেই দেখে। এ কারণে দ্বীপটির কাছেই গত দুই বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে সামরিক কার্যক্রম জারি রেখেছে চীন। তবে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং ওয়েন চীনের দাবির তীব্র বিরোধী। তিনি তাইওয়ানকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবেই মনে করেন।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/০৩ আগস্ট ২০২২

Back to top button