দক্ষিণ এশিয়া

রনিলের শপথগ্রহণের সময় চলে গেল বিদ্যুৎ, তদন্তের নির্দেশ

কলম্বো, ২২ জুলাই- চরম অর্থনৈতিক সংকটের মুখে পড়ে দ্বীপ রাষ্ট্র শ্রীলঙ্কায় নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন রনিল বিক্রমাসিংহে। বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট শপথ নেন তিনি। কিন্তু শুরুতেই বিপত্তি। প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহের শপথ অনুষ্ঠানের সময় আকস্মিক বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে অনুষ্ঠানের লাইভ সম্প্রচারে বিঘ্ন ঘটেছে।

সরকারি সূত্রের খবর, এ দিন প্রায় ১০ মিনিট পরে বিদ্যুৎ সংযোগ ফিরে এসেছে। ফলে শপথ অনুষ্ঠানের সরাসরি সম্প্রচার দেখানো যায়নি। কথা ছিল, রাষ্ট্রায়ত্ত ‘রূপবাহিনী’ চ্যানেলে অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচারিত হবে। সেখান থেকে অন্যান্য চ্যানেলে দেখানো হবে গোটা অনুষ্ঠান। কিন্তু বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে এ দিন পুরো পরিকল্পনাই বাতিল হয়ে যায়। এই ঘটনায় ফৌজদারি অপরাধ সংক্রান্ত বিভাগকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।
এদিকে, বিষয়টি নিয়ে কটাক্ষও করতে ছাড়েননি রনিল-বিরোধীরা। তাদের অনেকের মতে, এর মধ্য দিয়ে দেশজুড়ে চলতে থাকা বিদ্যুৎ সংকটের ছবিটাই প্রকট হয়েছে। আবার অনেকের কটাক্ষ, আগামী দিনে রনিল জামানা যে কঠিন হতে চলেছে, এ দিনের ঘটনাটি হয়তো তারই আভাস দিচ্ছে। এটি সাধারণ যান্ত্রিক ত্রুটি নাকি পরিকল্পিত কিছু, তা তদন্তের রিপোর্ট না-আসা পর্যন্ত বোঝা যাচ্ছে না।

তবে এইটুকু বিপর্যয় ছাড়া বাকি অনুষ্ঠান নির্বিঘ্নেই সম্পন্ন হয়েছে। শ্রীলঙ্কার অষ্টম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেশের শীর্ষ বিচারপতি জয়ন্ত জয়সূর্যের কাছে শপথ নিয়েছেন ৭৩ বছরের রনিল বিক্রমাসিংহে। পাশে ছিলেন তার স্ত্রী মৈত্রী বিক্রমাসিংহে। তবে এদিনও প্রেসিডেন্টের বাসভবনের সামনে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন রনিল-বিরোধীরা। তাদের অভিযোগ, শাসক দল এসএলপিপি’র নেতা তথা দেশের প্রাক্তন ও পলাতক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের মনোনীত প্রার্থী রনিল। তাকে সমর্থন করার অর্থ গোতাবায়াকেই সমর্থন করা।

তথ্যসূত্র: বিডি প্রতিদিন
মুন/২২ জুলাই

Back to top button