জাতীয়

ট্রেনের ছাদে কোন যাত্রী পরিবহন নয়: হাইকোর্ট

ঢাকা, ২১ জুলাই – দুর্ঘটনা ঠেকাতে ট্রেনের ছাদে যাত্রী নেওয়া বন্ধ ঘোষণা করেছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, এরপর থেকে ট্রেনের ছাদে যাত্রী পরিবহন করলে দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের চাকরিচ্যুত করা হবে। আজ বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন।

আদালতে শুনানিকালে রেলওয়ের তিন কর্মকর্তাকে উদ্দেশ করে হাইকোর্ট বলেছেন, রেলে এত অব্যবস্থাপনা কেন থাকবে? কেন টিকিটে কালোবাজারি হবে? কেন মানুষ ট্রেনের ছাদে যাবে? আপনারা কি রেলকে গ্রাস করতে চাইছেন? এ অবস্থা চলতে পারে না। আদালত বলেন, রেল আমাদের জাতীয় সম্পদ। সে সম্পদ রক্ষা করার দায়িত্ব আপনাদের দেওয়া হয়েছে। কিন্তু, আপনারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করছেন না। মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ট্রেনের ছাদে ওঠে। ট্রেন থেকে পড়ে তো দুর্ঘটনাও হতে পারে। আর আপনারা নিশ্চিন্তে ঘুমান। এটা হতে পারে না। আপনারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করুন।

এদিকে রেলের অব্যবস্থাপনা নিয়ে মহিউদ্দিন রনির অভিযোগ তদন্তে কমিটি গঠন করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ তথ্য জানায় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

এর আগে ভুয়া ই-টিকেটিং সিস্টেমের অভিযোগ তুলে ঈদুল আজহার আগে থেকেই বাংলাদেশ রেলওয়ের কথিত অব্যবস্থাপনা ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছিলেন ঢাবির থিয়েটার অ্যান্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র মহিউদ্দিন রনি।পরে রনির অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার (২০ জুলাই) বেলা ১১টায় রাজধানীর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের কার্যালয়ে এ বিষয়ে শুনানি হয়। শুনানি শেষে রেলের টিকিট বিক্রিতে অব্যবস্থাপনা প্রমাণ হওয়ায় সহজ ডটকমকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করে ভোক্তা অধিদফতর। পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে এই টাকা পরিশোধ করতে বলা হয়েছে।

সূত্র : বিডি২৪লাইভ
এন এ/ ২১ জুলাই

Back to top button