দক্ষিণ এশিয়া

ভোট গ্রহণ শেষ, কে হচ্ছেন ভারতের নতুন রাষ্ট্রপতি

নয়াদিল্লি, ১৮ জুলাই – ভারতের পঞ্চদশ রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন সংসদ সদস্য ও বিধায়করা। সোমবার অনুষ্ঠিত এ ভোটে লড়াই ছিল মূলত দেশটির ক্ষমতাসীন জোট এনডিএর প্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মু ও বিরোধী প্রার্থী যশবন্ত সিনহার মধ্যে।

চিফ রিটার্নিং অফিসার পি সি মোদি জানান, ভোট শান্তিপূর্ণভাবেই শেষ হয়েছে। এতে ভোট পড়েছে ৯৮ দশমিক ৯ শতাংশ। নির্বাচনের ফল ঘোষণা হবে ২১ জুলাই; ২৫ জুলাই নতুন রাষ্ট্রপতির শপথ। খবর এনডিটিভির।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ ৬০০ জন সোমবার ভোট দিয়েছেন। হুইল চেয়ারে চেপে ভোট দিতে যান সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ও সমাজবাদী পার্টির সংসদ সদস্য মুলায়ম সিং যাদব। সংসদে এসে ভোট দিয়েছেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী ও সংসদ সদস্য রাহুল গান্ধী। তবে আটজন সংসদ সদস্য ভোট দেওয়া থেকে বিরত ছিলেন। বিজেপি ও শিবসেনার দু’জন করে সংসদ সদস্য, কংগ্রেস, শিবসেনা, সমাজবাদী পার্টি, মায়াবতীর বহুজন সমাজ পার্টি, আসাদউদ্দিন ওয়াইসির এমআইএমের একজন করে সংসদ সদস্য ভোট দেননি।

পাঞ্জাবের শিরোমণি অকালি দলের বিধায়ক মনপ্রীত সিং আয়ালি ভোটদানে অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, তার রাজ্যের বহু ইস্যুর এখনও সমাধান হয়নি। তাছাড়া মুর্মুকে সমর্থনের আগে তার সঙ্গে পরামর্শ করেনি দল।

ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, মুর্মুকে শেষ মুহূর্তে প্রার্থী করে মোক্ষম চাল দিয়েছে এনডিএ। আদিবাসী মুর্মুকে প্রার্থী করার কারণে অনায়াসে উড়িষ্যার নবীন পট্টানায়েকের দল বিজেডি এবং ঝাড়খণ্ডের শাসক দল ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার সমর্থন পেয়েছে। মর্মু উড়িষ্যার বিধায়ক এবং ঝাড়খণ্ডের রাজ্যপাল ছিলেন। এ দুই দলের সমর্থন মেলায় মুর্মুর জয় অনেকটাই নিশ্চিত হয়েছে। উদ্ধব ঠাকরের নেতৃত্বাধীন শিবসেনাও আদিবাসী হওয়ার কারণে মুর্মুকে সমর্থন জানিয়েছে।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/১৮ জুলাই ২০২২

Back to top button