বিচিত্রতা

সেলফি তুলতে গিয়ে আগ্নেয়গিরির গর্তে পড়লেন যুবক! অতঃপর …

পর্বতে ওঠার পর সেলফি তুলছিলেন ২৩ বয়র বয়সী এক মার্কিন পর্যটক। হঠাৎই হাত থেকে ফোনটি পড়ে যায়। সেটি তোলার জন্য এগিয়ে গেলে ভারসাম্য রাখতে পারেননি। পড়ে যান আগ্নেয়গিরির গর্তে।

ইতালির ক্যাম্পানিয়ার নেপলস উপসাগরে অবস্থিত মাউন্ট ভিসুভিয়াস পর্বত এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে প্রাণে বেঁচে যাওয়া ওই যুবক কিছুটা আহত হন। তার হাত ও পিঠে আঘাত লাগে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

জানা গেছে, মার্কিন ওই পর্যটক ও তার পরিবার মাউন্ট ভিসুভিয়াসের বাঁক পেরিয়ে সীমার বাইরের পথ ধরে এগিয়ে উপরের দিকে উঠে যায়। তারা নেপলসের ওপর আগ্নেয়গিরির ১ হাজার ২৮১ মিটার উপড়ে চূড়ায় পৌঁছে যান। এর কিছুক্ষণ পরই ঘটনাটি ঘটে।

ওই পর্যটককে উদ্ধারে তাৎক্ষণিক কাজ শুরু করে ভিসুভিয়াসের গাইডরা। পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পর্যটককে উদ্ধারের জন্য হেলিকপ্টারও আনা হয়। বর্তমানে ওই পর্যটক চিকিৎসাধীন।

এদিকে সরকারি জমিতে অবৈধ প্রবেশের দায়ে ওই পর্যটক ও তার পরিবারের তিন সদস্যের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। কারণ তারা কোনো অনুমোদন ছাড়াই পর্বতে ওঠেন। অত্যন্ত বিপদজনক হওয়ায় ভিসুভিয়াসের একটি নির্দিষ্ট সীমানা নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। পর্যটক ও তার পরিবার সেদিক দিয়েই ওঠার চেষ্টা করছিল।

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে ১১ বছর বয়সী এক কিশোর ও তার বাবা-মা নেপলসের পশ্চিমে ক্যাম্পি ফ্লেগ্রেই এলাকায় সোলফাতারা ডি পোজুলি আগ্নেয়গিরির গর্তে পড়ে মারা যায়। ওই কিশোর গর্তে পড়ার আগে গ্যাসের কারণে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। তার বাবা-মা তাকে বাঁচাতে গিয়ে গর্তে গিয়ে পড়েন। সেখানেই তাদের মৃত্যু হয়।

এন এ/ ১৬ জুলাই

Back to top button