ক্রিকেট

শ্রীলঙ্কানদের দুর্দশার করুণ কাহিনী শোনালেন কামিন্স

কলম্বো, ১২ জুলাই – স্বাধীনতার পর সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক মন্দার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা। জ্বালানি, বিদ্যুৎ এবং খাবারের ঘাটতির কারণে ব্যাপক জনরোষ দেখা দিয়েছে দেশটিতে। এতে দ্রব্যমূল্যও নাগালের বাইরে চলে গেছে। এর মাঝেই দেশটিতে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলেছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল।

গলে যখন সিরিজের শেষ টেস্ট চলছিলো, তখন স্টেডিয়ামের বাইরেই বিক্ষোভকারীদের উপস্থিতি ছিলো। পুরো বিষয়টার অনেকটা চাক্ষুষ সাক্ষী বলা যায় অস্ট্রেলিয়া দলকে। সিরিজ শেষে তাই লঙ্কানদের প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থন জানিয়েছেন অজি অধিনায়ক প্যাট কামিন্স।

গল টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে হেরেছে অস্ট্রেলিয়া। কঠিন পরিস্থিতিতেও মাঠের খেলায় কোনো চাপ অনুভব করেনি সফরকারীরা। কামিন্স অন্তত এমনটাই জানিয়েছেন। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) প্রকাশিত এক ভিডিওতে এই ডানহাতি পেসার বলেছেন, স্টেডিয়ামের বাইরে যে প্রতিবাদ হলো, সেটি এড়িয়ে যাওয়ার প্রশ্নই আসে না। দেশ থেকে আমাদের কাছে অনেক মেসেজ এসেছে। যেগুলোতে লেখা- ‘সবকিছু কেমন চলছে? আশা করি সবকিছু ঠিকঠাকই আছে।’ তবে আমরা সেখানে কোনো সমস্যাই অনুভব করিনি।

এসময় লঙ্কানদের কঠিন পরিস্থিতির বর্ণনা দিতে গিয়ে কামিন্স বলেন, হোটেলের কয়েকজন কর্মচারী এবং ড্রাইভারের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা কী কষ্টই না করছে! তারা একদিন খেয়ে পরের দিন না খেয়ে থাকছেন; যাতে সন্তানদের খাওয়াতে পারেন। কী কষ্ট ভাবতে পারেন! মাঝে মাঝে মনে হয় কতটা সৌভাগ্যবান আমরা! বিশ্বজুড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছি। শুধু এখানে এসে ক্রিকেট খেলাই নয়; খেলার কী প্রভাব পড়েছে সেটাও বুঝতে পারছি।

অন্যদিকে অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারও তিন ফরম্যাটের সিরিজ শেষে শ্রীলঙ্কার জন্য এক আবেগী পোস্ট করেছেন। ইনস্টাগ্রামে শ্রীলঙ্কার পতাকার একটি ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেন, কঠিন সময়ের মধ্যেও আমাদের এই আতিথেয়তা দেওয়ার জন্য, ধন্যবাদ শ্রীলঙ্কা। এই ভালোবাসা ও সমর্থনের জন্য আমরা কৃতজ্ঞ। তোমরা আমাদের জন্য দু’হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলে। এই সফর কখনও ভুলতে পারব না। শ্রীলঙ্কায় আমার সবচেয়ে ভালো লেগেছে তাদের মুখের হাসি। পরিস্থিতি যেমনই হোক না কেন, মুখে সেই হাসি লেগেই থাকে। সবসময় তোমরা স্বাগত জানাতে প্রস্তুত থাকো। আবারও ধন্যবাদ। পরিবার নিয়ে শ্রীলঙ্কায় ছুটি কাটাতে আসার জন্য আমার তর সইছে না।

এবারের সফরে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ২-১ ব্যবধানে জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। এরপর পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ হারে ৩-২ ব্যবধানে। আর টেস্ট সিরিজ ১-১ ড্র হয়েছে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ১২ জুলাই

Back to top button