ঢাকা

১২ ঘণ্টার আগেই কোরবানির বর্জ্য শতভাগ অপসারণ করা হয়েছে

ঢাকা, ১১ জুলাই – ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, সবার সহযোগিতায় পূর্ব ঘোষিত ১২ ঘণ্টার আগেই উত্তর সিটির কোরবানির বর্জ্য শতভাগ অপসারণ করা সম্ভব হয়েছে।

তিনি বলেন, সচেতন নাগরিকদের আন্তরিক সহযোগিতায় এটি করতে পেরেছি। আগামী দিনেও ঢাকা শহরকে পরিচ্ছন্ন রাখতে জনগণ ও সিটি করপোরেশনকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে নগরভবনের হল রুমে ডিএনসিসির কোরবানির বর্জ্য অপসারণ সংক্রান্ত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

মেয়র বলেন, ঈদের দিন ডিএনসিসি ৭নং ওয়ার্ডের ৭টি নির্দিষ্ট স্থানে প্রায় ৬ হাজার পশু কোরবানি দেওয়া হয়েছে। আমি নিজে সেখানে গিয়ে দেখেছি দুপুরের মধ্যেই ৭নং ওয়ার্ডের শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করা হয়।

এ বছর পরীক্ষামূলকভাবে ডিএনসিসির ৩টি ওয়ার্ডের ৯টি নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানি দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে কোরবানির বর্জ্য অপসারণে ৭নং ওয়ার্ড প্রথম হওয়ায় সেখানে পুরষ্কার হিসেবে বরাদ্দ বাড়িয়ে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

ক্ষমতায় নয় বরং জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব নিয়ে এসেছি উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি শহরকে পরিচ্ছন্ন রাখতে গতকাল পুরোটা সময় মাঠে থেকে দায়িত্ব পালন করেছি এবং নির্ধারিত সময়ে বর্জ্য অপসারণ নিশ্চিত করতে পেরেছি।

তিনি বলেন, আমরা সিটি করপোরেশন থেকে নির্দিষ্ট স্থানে প্যান্ডেলের ব্যবস্থা করে দিব, মাংস বাসায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য গাড়ির ব্যবস্থাও করে দিব। রাস্তায়, ফুটপাতে ও যেখানে সেখানে কোরবানি না দিয়ে আপনারা শুধু দায়িত্ব নিয়ে প্যান্ডেলে এসে পশু কোরবানি দিবেন।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, আধুনিক জবাইখানা নির্মাণের জন্য দ্রুতই আমরা ব্যবস্থা নিব। সংশ্লিষ্ট বিভাগকে আমি নির্দেশনা দিয়েছে আধুনিক জবাইখানা নির্মাণের জন্য। গাবতলী স্থায়ী পশুর হাটের পাশেই উন্নত দেশের মতো আধুনিক জবাইখানা নির্মাণ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

এদিকে কোরবানির দ্বিতীয় দিনে দক্ষিণ সিটির ১৫ ওয়ার্ডের শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দক্ষিণ সিটির জনসংযোগ কর্মকর্তা আবু নাছের।

তিনি জানান, সোমবার দুপুর দেড়টায় ১০ নম্বর ওয়ার্ড সর্বপ্রথম শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করেছে। এছাড়াও শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করা অন্যান্য ওয়ার্ডগুলো হলো- ২৫, ২৬, ২৮, ৩৯, ৪১, ৪৩, ৪৬, ৫৩, ৫৬, ৫৯, ৬২, ৬৩, ৭০ ও ৭২ নম্বর ওয়ার্ড।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/১১ জুলাই ২০২২

Back to top button