এশিয়া

হৃদয় টিস্যুর মতো নরম না হলে রাজনীতির দরকার নেই: মাহাথির

কুয়ালালামপুর, ১১ জুলাই – রাজনীতিবিদদের নেতৃত্বের গুণাবলি প্রসঙ্গে মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, রাজনীতিবিদদের সমালোচনার মুখোমুখি হতে প্রস্তুত থাকতে হবে। যদি আপনার হৃদয় টিস্যুর মতো নরম না হয়, তবে আপনার রাজনীতিতে যাওয়ার ইচ্ছা ভুলে যাওয়া উচিত। একজন রাজনীতিবিদকে সর্বদা সমালোচনা এবং অপমানের শিকার হতে এমনকি জনগণের দ্বারা ঘৃণার শিকার হতেও প্রস্তুত থাকতে হবে।

মালয়েশিয়ার সামাজিক সংকট নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি বলেন, গ্রাম ও শহরের মানুষদের মধ্যে সম্পদের বৈষম্য বাড়ছে। পাশাপাশি অন্য সামাজিক সমস্যাগুলোও বাড়ছে। এ সংকট মোকাবিলায় তার বর্তমান সীমিত ক্ষমতা নিয়েও তিনি হতাশা ব্যক্ত করেন।

৯৭ বছর বয়সী মালয়েশিয়ার অন্যতম এ রূপকার গতকাল রোববার (১০ জুলাই) অ্যাস্ট্রো আওয়ানিকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে এসব কথা বলেন।

তার মতে, কীভাবে দেশকে উন্নত করা যায় সে সম্পর্কে তার অনেক ধারণা ছিল। তবে তার হতাশার কারণ, তিনি সেই ধারণাগুলো বাস্তবায়নের ক্ষমতায় বর্তমানে নেই।

তিনি বলেন, এখনো এমন অনেক কিছু আছে যা আমি করতে চাই এবং আমি সামাজিক সমস্যা নিয়ে খুবই চিন্তিত। যারা গ্রামে বাস করে তারা দরিদ্র, কিন্তু শহরের বাসিন্দারা তুলনামূলকভাবে ধনী।

মহাথির মনে করেন, গ্রামে বসবাসকারী লোকদের মঙ্গল করার উপায় খুঁজে বের করতে হবে। কিন্তু এর জন্য কর্তৃত্ব থাকাও দরকার।

আসন্ন সাধারণ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার বিষয়ে তার ব্যাখ্যা, তিনি মনে করেন দেশটির অনেক লোক দেশ পরিচালনার বিষয়ে এখনো অজ্ঞ। মালয়েশিয়ার সম্ভাবনা এবং প্রচুর সম্পদ রয়েছে। তবে নেতারা যদি সেগুলোর সঠিক ব্যবহার করতে না জানেন তবে এর কিছুই গুরুত্বপূর্ণ নয়।

মাহাথির বলেন, আমি দেখছি এ দেশের জন্য অনেক কিছু করা যেতে পারে। কী করতে হবে তা অনেকে জানে না বলে মনে হচ্ছে।

মাহাথির মোহাম্মদ মালয়েশিয়ার সবচেয়ে দীর্ঘ মেয়াদি প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। তিনি ১৯৮০ এবং ২০১৮-২০ থেকে দুটি মেয়াদে মোট ২৪ বছর ক্ষমতায় ছিলেন। গত মাসে মাহাথির বলেছিলেন, তিনি তার লাংকাউই সংসদীয় আসন রক্ষার জন্য পরবর্তী সাধারণ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা বিবেচনা করবেন।

তিনি বলেছিলেন, পেজুয়াং আসনটিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য বেশ কয়েকজন প্রার্থীর দিকে নজর রাখা হয়েছে, তবে উপযুক্ত কাউকে পাওয়া না গেলে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য উন্মুক্ত থাকবেন।

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এস, ১১ জুলাই

Back to top button