দক্ষিণ এশিয়া

শ্রীলঙ্কায় সর্বদলীয় সরকার গঠনে বিরোধীরা সম্মত

কলম্বো, ১১ জুলাই – শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের ঘোষণা অনুযায়ী বুধবার তার পদত্যাগের পর একটি সর্বদলীয় অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠনে সম্মত হয়েছে দেশটির প্রধান বিরোধী দলগুলো।

দেশটির পঙ্গু অর্থনৈতিক সংকটের অব্যবস্থাপনার জন্য অভূতপূর্ব রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া এবং প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহেকে পদত্যাগে বাধ্য করা হচ্ছে।

সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনেঢ় তথ্য অনুযায়ী, রাজাপাকসের পদত্যাগের পর বর্তমান অভূতপূর্ব অর্থনৈতিক সংকটে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার উপায় খুঁজতে বিরোধী দলগুলো আলোচনা করেছে।

শ্রীলঙ্কার ক্ষমতাসীন পদুজানা পেরামুনা দলের বিচ্ছিন্নতাবাদী অংশের উইমাল ভিরাওয়ানসা বলেন, আমরা একটি অন্তর্বর্তী সময়ের জন্য সব দলের অংশগ্রহণে ঐক্যের সরকার গঠনে নীতিগতভাবে সম্মত হয়েছি। এটি এমন একটি সরকার হবে যেখানে সব দলের প্রতিনিধিত্ব থাকবে।

এসএলপিপি বিচ্ছিন্ন গ্রুপের আরেক নেতা বাসুদেব নানায়াক্কারা বলেন, আগামী ১৩ জুলাই গোতাবায়া রাজাপাকসের পদত্যাগের জন্য তাদের অপেক্ষা করতে হবে না।

রাজাপাকসে শনিবার সংসদের স্পিকার মাহিন্দা ইয়াপা আবেবর্দেনাকে জানিয়েছেন, দেশের বিরোধীদলগুলোর তার পদত্যাগের দাবির প্রেক্ষিতে বুধবার তিনি পদত্যাগ করবেন।

প্রধান বিরোধীদল সামাগী জন বালাওয়েগয়া দল জানায়, তারা দলের অভ্যন্তরে ব্যাপক আলোচনা করেছে।

এসজেবির সাধারণ সম্পাদক রঞ্জিত মদুমা বান্দারা বলেন, আমরা একটি সীমিত সময়ের জন্য সব দলের অন্তর্বর্তী সরকার গঠনই লক্ষ্য এবং তারপরে সংসদ নির্বাচন করতে চাই।

রাজাপাকসে পদত্যাগ করার পর নতুন সরকারের ক্ষমতা হস্তান্তরের জন্য সংসদ আহ্বানের বিষয়ে আলোচনা করতে সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা সোমবার বিকেলে বৈঠকে বসবেন।

সংবিধান অনুযায়ী, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী সংসদে ভোট না হওয়া পর্যন্ত ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন এবং পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নিয়োগ করবেন।

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ১১ জুলাই

Back to top button