এশিয়া

শিনজো আবেকে খুন করা মূল লক্ষ্য ছিল না

টোকিও, ০৯ জুলাই – জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবেকে খুন করা আসল লক্ষ্য ছিল না বলে দেশটির পুলিশকে জানিয়েছেন এ ঘটনায় গ্রেপ্তার আততায়ী তেৎসুয়া ইয়ামাগামি (৪১)। তার মূল লক্ষ্য ছিল, একটি ধর্মীয় সংগঠনের নেতাকে হত্যা করা। সূত্রের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে জাপানি সংবাদমাধ্যম কিয়োডো নিউজ।

শনিবার পুলিশি জেরায় শুটার তেৎসুয়া ইয়ামাগামি আরও দাবি করেন, ওই ধর্মীয় নেতা তার মায়ের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। তার মা ওই ধর্মীয় গোষ্ঠীকে দান করে দেউলিয়া হয়ে পড়েন। এ কারণে তাকে খুন করতে চেয়েছিলেন।

কিয়োডো নিউজ বলছে, পুলিশি জেরায় তেৎসুয়ার দাবি, শিনজো আবে ওই ধর্মীয় সংগঠনকে প্রচারের আলোয় নিয়ে এসেছেন। এছাড়া সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে রাজনৈতিক কারণে খুনের তত্ত্ব খারিজ করে দিয়েছেন তেৎসুয়া।

লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির জ্যেষ্ঠ নেতা শিনজো আবে জাপানের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘসময় প্রধানমন্ত্রিত্ব করেছেন।

শুক্রবার সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে খুব কাছ থেকে দুইবার গুলি করার পরও ঘটনাস্থল থেকে পালানোর কোনো রকম চেষ্টা করেননি তেৎসুয়া। ওখানেই দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি। এতে তাকে গ্রেপ্তার করতে বিশেষ কোনো বেগ পেতে হয়নি পুলিশকে।

জাপানের স্থানীয় সময় শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ নারা শহরে এক কর্মসূচিতে বক্তৃতা করছিলেন শিনজো। সে সময়ই গুলি চালান ওই আততায়ী। ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন সাবেক প্রধানমন্ত্রী। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/০৯ জুলাই ২০২২

Back to top button