এশিয়া

আবেকে গুলি করে হত্যা, বিশ্বনেতাদের নিন্দা

টোকিও, ০৮ জুলাই – জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবেকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করায় এর নিন্দা করেছেন বিশ্বনেতারা।

আজ শুক্রবার আল জাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আবের গুলিবিদ্ধ হওয়ার সংবাদ ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বনেতারা ঘটনার নিন্দা করেন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, ‘শিনজো আবের ওপর হামলার সংবাদে আতঙ্কিত ও দুঃখিত। তার পরিবার ও স্বজনদের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করছি।’

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেন, ‘খুবই দুঃসংবাদ। শিনজো আবে, তার পরিবার ও জাপানের জনগণের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করছি।’

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেরগেই লাভরভ বলেন, ‘জানি না এমন হামলার পেছনে কারণ কী থাকতে পারে। জাপানি সহকর্মীদের কাছে এ ঘটনার নিন্দা করেছি। আশা করি, এ ঘটনার তদন্ত হবে।’

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা জেসিন্ডা আরডের্ন বলেন, ‘জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের ঘটনা শুনে খুব মর্মাহত হয়েছি। আমি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর প্রথম যে নেতাদের সঙ্গে দেখা করেছি আবে তাদের অন্যতম।’

তিনি আরও বলেন, ‘আবে তার দায়িত্বের প্রতি ভীষণ সচেতন ছিলেন। তিনি উদার ও দয়ালু ছিলেন। আমি আবের স্ত্রী ও জাপানের জনগণের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করছি। এ ঘটনা আমাদের সবাইকে মর্মাহত করেছে।’

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী অ্যান্টনি আলবানিজ বলেন, ‘জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের গুলিবিদ্ধ হওয়ার দুঃখজনক সংবাদ পেলাম। এই দুঃসময়ে তার পরিবার ও জাপানের জনগণের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করছি।’

ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মিশেল বলেন, ‘পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় শিনজো আবের ওপর কাপুরুষোচিত হামলার সংবাদে ব্যথিত হয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘আবে সত্যিকারের বন্ধু, বহুপাক্ষিক ব্যবস্থা ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের রক্ষক। এই সংকটময় মুহূর্তে ইইউ জাপানের জনগণ ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদার পাশে আছে।’

আবের পরিবারের প্রতি গভীর সহানুভূতিও প্রকাশ করেন তিনি।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘প্রিয় বন্ধু আবের ওপর হামলার সংবাদে খুবই মর্মাহত। তার জন্য, তার পরিবার ও জাপানের জনগণের জন্য প্রার্থনা রইল।’

এ ছাড়াও, ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেতনো মারসুদি ও তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েনসহ আরও অনেকে এ ঘটনার নিন্দা করেছেন।

সূত্র: ডেইলি স্টার
এম ইউ/০৮ জুলাই ২০২২

Back to top button