ক্রিকেট

‘ভারতের সবচেয়ে দামি টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড় হার্দিক’

নয়াদিল্লি, ০৮ জুলাই – ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা সময় পার করছেন ভারতের পেস বোলিং অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। ইনজুরি কাটিয়ে আইপিএলের মধ্য দিয়ে মাঠে ফেরার পর থেকেই ব্যক্তিগত ও দলগত পারফরম্যান্সে প্রতিনিয়ত নিজেকে ছাড়িয়ে যাচ্ছেন ২৮ বছর বয়সী এ তারকা।

হার্দিকের অধিনায়কত্বেই প্রথমবার আইপিএলে অংশ নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে গুজরাট টাইটান্স। ব্যাটে-বলে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন হার্দিক। এছাড়া সম্প্রতি আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তার অধীনেই সিরিজ জিতেছে ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দল।

তাই ভারতের ক্রিকেট মহলে প্রচ্ছন্ন দাবি শোনা যায়, হার্দিকের হাতেই তুলে দেওয়া হোক ভারতের টি-টোয়েন্টি দল। বিশেষ করে বৃহস্পতিবার আরও একটি অলরাউন্ড নৈপুণ্যে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দলকে জেতানোর পর আবারও জোরালো হয়েছে এ দাবি।

প্রথমে ব্যাট হাতে ক্যারিয়ারসেরা ৩৩ বলে ৫১ রানের ইনিংস। পরে বোলিংয়ে নেমেও ক্যারিয়ারের সেরা ৩৩ রানে ৪ উইকেট তুলে নেন হার্দিক। স্বাভাবিকভাবেই ভারতের ৫০ রানের জয়ে তার হাতে ম্যাচসেরার পুরস্কার উঠেছে। এমন পারফরম্যান্সের পর সাবেক ক্রিকেটারদেরও প্রশংসায় ভাসছেন হার্দিক।

ভারতের সাবেক ওপেনার ও ক্রিকেট বিশ্লেষক আকাশ চোপড়ার মতে, হার্দিকই এখন দলের সবচেয়ে দামি টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড়। নিজের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে দেওয়া এক ভিডিওবার্তায় এ বিষয়ে কথা বলেছেন আকাশ চোপড়া।

তার ভাষ্য, ‘হার্দিক পান্ডিয়া ক্রমেই ভারতের সবচেয়ে দামি টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড় হয়ে উঠছে। তার মতো আর কেউ নেই। সে যদি পুরোপুরি ফিট থাকে, তাহলে যে কারও বিপক্ষে তাকে নামিয়ে দেওয়া যাবে। সে ভারতের সেরা টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড়। যা আজকেও প্রমাণ করলো।’

এদিকে ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা হার্দিক বলেছেন, ‘আমি আমার ক্রিকেট উপভোগ করছি। আমার দিক থেকে প্রস্তুতিতে অনেক সময় যায়। যাতে আমার শরীর ঠিক অবস্থায় থাকে। খেলার আগে আমি যে বিরতিটা নেই, সেটিকে সুযোগ হিসেবে কাজে লাগাই। আমার মনে হয় সেই বিরতি আমার প্রয়োজন।’

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এস, ০৮ জুলাই

Back to top button