ইউরোপ

সেই দ্বীপে রুশ মিসাইল হামলা, পালিয়ে গেল ইউক্রেনীয় সেনারা

কিয়েভ, ০৭ জুলাই – গত ৩০ জুন ইউক্রেনের স্নেক আইল্যান্ড থেকে সরে পড়ে রুশ সেনারা। ইউক্রেনের অত্যাধিক হামলার মুখে পিছু হটতে বাধ্য হয় রুশ বাহিনী।

এরপর এই স্ন্যাক আইল্যান্ড নামের গুরুত্বপূর্ণ দ্বীপটিতে পুনরায় নিজেদের পতাকা উত্তোলন করার কথা জানায় ইউক্রেন।

আর পতাকা উত্তোলনের বিষয়টিকে নিজেদের বড় অর্জন হিসেবে প্রচার চালায় ইউক্রেন।

রাশিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, স্নেক আইল্যান্ডে পতাকা নিয়ে আসা ইউক্রেনীয় সেনাদের ওপর মিসাইল হামলা চালিয়েছে তারা। এই হামলায় কয়েকজন নিহত হয়েছেন। আর বাকি ইউক্রেনীয় সেনারা পালিয়ে গেছেন।

এ ব্যাপারে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, দোনবাসে ব্যপার ক্ষয়ক্ষতি ও তাদের সেনারা পালিয়ে যাওয়ার বিপরীতে, ৭ জুলাই রাতে ইউক্রেন স্নেক আইল্যান্ডে পতাকা পাঠানোর চেষ্টা করে।

বিবৃতিতে তারা আরও বলেছে, ভোর ৫টার দিকে দ্বীপটিতে একটি মোটরবাইকে করে আসে সেনারা। তারা পতাকার সঙ্গে ছবি তোলে। রাশিয়ার এরোস্পেসের বিমান তাৎক্ষণিকভাবে স্নেক আইল্যান্ডে উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন মিসাইল ছোঁড়ে। মিসাইল হামলায় কিছু সেনা নিহত হয়েছে। আর বাকিরা ওডেসার প্রিমোরস্কোয়ে গ্রামের দিকে পালিয়ে গেছে।

স্নেক আইল্যান্ডে রাশিয়া হামলা করেছে, ইউক্রেনের পক্ষ থেকে সেই তথ্য জানানো হয়। তবে সেনা নিহত হওয়ার কোনো তথ্য তারা দেয়নি।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/০৭ জুলাই ২০২২

Back to top button