অপরাধ

বন্দর থেকে সরিয়ে নেওয়া ২৭ কোটি টাকার গাড়ি আটক

চট্টগ্রাম, ০৬ জুলাই – চট্টগ্রাম বন্দরে আমদানির পর শুল্কায়ন ছাড়ায় গোপনে সরিয়ে নিয়ে ঢাকায় লুকিয়ে রাখা অবস্থায় ২৭ কোটি টাকা মূল্যের একটি রোলস রয়েস ব্র্যান্ডের গাড়ি আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দারা।

সোমবার (৪ জুলাই) ঢাকার বারিধারার বাড়ির গ্যারেজ থেকে লুকানো অবস্থায় গাড়িটি আটক ও জব্দ করা হয়। বুধবার (৬ জুলাই) বিকেলে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তরের যুগ্ম পরিচালক শামসুল আরেফিন খান সাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ সব তথ্য জানানো হয়।

যুগ্ম পরিচালক শামসুল আরেফিন খান জানান, গত এপ্রিল মাসে চট্টগ্রাম ইপিজেডের হংকং ও বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত জেড অ্যান্ড জেড ইনটিমেটস লিমিটেড নামে প্রতিষ্ঠান শুল্কমুক্ত সুবিধায় রোলস রয়েস গাড়িটি আমদানি করে। গত এপ্রিলে গাড়িটি আমদানির পর চট্টগ্রাম রপ্তানি প্রক্রিয়াজাতকরণ (ইপিজেড) এলাকায় নেওয়া হয়। এরপর শুল্কায়নের জন্য কাগজপত্র দাখিল করা হয় কাস্টম হাউসে। তবে শুল্কায়নের আগেই গত ১৭ মে গাড়িটি প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের ঢাকার বারিধারায় বাসায় সরিয়ে নেওয়া হয়। এ খবর জানতে পেরে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর প্রথমে চট্টগ্রাম ইপিজেডে অভিযান চালায়। পরে তারা জানতে পারে গাড়িটি ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে। এই খবর নিশ্চিত হয়ে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের যুগ্ম পরিচালক শামসুল আরেফিন খানের নেতৃত্বে ঢাকার বারিধারায় প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের বাসার গ্যারেজে অভিযান পরিচালনা করে গাড়িটি জব্দ করতে সক্ষম হন।

শুল্ক গোয়েন্দা কর্তৃপক্ষ জানায়, আমদানিকারক যে বিধিতে শুল্কমুক্ত সুবিধায় গাড়িটি আমদানি করেছেন, তাতে তারা ২ হাজার সিলিন্ডার ক্যাপাসিটির গাড়ি আমদানি করে এই সুবিধা পাবেন। কিন্তু আমদানিকৃত গাড়িটি সিলিন্ডার ক্যাপাসিটি ৬ হাজার ৭৫০। ফলে এই গাড়িতে ২৪ কোটি টাকা শুল্ককর দিতে হবে। এছাড়াও আমদানিকারক শুল্কায়ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন না করেই গাড়িটি গ্যারেজে লুকিয়ে রেখে শুল্ক আইনের লংঘন করেছেন। ফলে গাড়িটির আমদানি চোরাচালান অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে।

গাড়িটি ঢাকা কাস্টমস হাউসের শুল্ক গুদামে জব্দ করে রাখা হয়েছে। এ ব্যাপারে পররর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এম এস, ০৬ জুলাই

Back to top button