পশ্চিমবঙ্গ

ইঁদুর গর্ত করায় ভেঙে পড়েছে বিদ্যাসাগরের বাড়ি, দাবি প্রকৌশলীর

কলকাতা, ০৬ জুলাই – সংস্কারের সময় হঠাৎ হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়লো বাংলার নবজাগরণের দিশারী ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের প্রায় দেড়শ’ বছরের পুরোনো বাড়ির একাংশ। চোখের সামনে ঐতিহ্যবাহী বাড়িটি ভেঙে পড়তে দেখে স্বভাবতই ক্ষুব্ধ স্থানীয় বাসিন্দারা। তাদের অভিযোগ, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অপরিকল্পিত কাজের জন্যই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করে সব দোষ ইঁদুরের ঘাঁড়ে চাপিয়েছেন দায়িত্বরত প্রকৌশলী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের খবর অনুসারে, ২০১৯ সালে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বীরসিংহ গ্রামে গিয়ে বিদ্যাসাগরের বাড়িটিকে ‘হেরিটেজ বিল্ডিং’ হিসেবে ঘোষণা করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। এরপর থেকেই বাড়িটি সংস্কারের কাজ শুরু হয়।

সোমবার (৪ জুলাই) বিকেলে বাড়ির একটি অংশ হঠাৎ ভেঙে পড়ে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অপরিকল্পিত কাজের জন্যই বাড়িটি ভেঙেছে বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা।

তবে সংস্কারের কাজে যুক্ত পূর্ত অধিদপ্তরের প্রকৌশলী অঞ্জন মিত্র বলেছেন, মালপত্রের কোনো ত্রুটি ছিল না। ইঁদুর মাটিতে গর্ত করায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

কোনো ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ ছাড়াই এমন গুরুত্বপূর্ণ একটি বাড়ির অংশ কীভাবে ভেঙে পড়ল, সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে বীরসিংহ ডেভেলপমেন্ট অথোরিটি। এরই মধ্যে তাদের প্রতিনিধিরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের বাড়িটি সংস্কারের জন্য রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ২ কোটি ৩৬ লাখ রুপি বরাদ্দ করা হয়েছে। এর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পূর্ত অধিদপ্তরকে। আর অধিদপ্তরের পক্ষ থেকেই ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে কাজ দেওয়া হয়েছিল।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/০৬ জুলাই ২০২২

Back to top button