ইউরোপ

অল্প সময়ের মধ্যে বড় অভিযান শুরু হবে

গ্রোজনি, ০২ জুলাই – রাশিয়ার চেচনিয়া প্রদেশের নেতা রমজান কাদিরভ শনিবার দাবি করেছেন বিচ্ছিন্নতাবাদী মিলিশিয়া এবং রুশ সেনারা ইউক্রেনের লিসিচানস্ক শহর অবরুদ্ধ করেছে।

এর আগে রুশপন্থি একজন কর্মকর্তাও লিসিচান্সক ঘিরে ফেলার দাবি করেন।

তবে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী এটি পুরোপুরি অস্বীকার করেছে।

রুসলান মুজায়াতচুক নামে ইউক্রেনের ন্যাশনাল গার্ডের একজন মুখপাত্র টিভিতে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, লিসিচানস্কে হামলা বেড়েছে। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে শহরটি ঘিরে ফেলা হয়নি এবং লিসিচানস্ক ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে আছে।

তবে রমজান কাদিরভ দৃঢ় কণ্ঠে বলেছেন, লিসিচানস্ক ঘিরে ফেলা হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে সেখানে বড় অভিযান শুরু করা হবে।

এ ব্যাপারে টেলিগ্রামে কাদিরভ বলেছেন, ফাঁদ বন্ধ হয়ে গেছে। মিত্র সেনারা লিসিচানস্ককে পুরোপুরি ঘিরে ফেলেছে। বলা যায় শহরটিতে দ্রুত সময়ের মধ্যে বড় ধরনের অভিযান শুরু হবে। শত্রুদের (ইউক্রেনীয় সেনাদের) এখন যাওয়ার কোনো জায়গা নেই কারণ শহরের প্রবেশ ও বাহির হওয়ার সব পথ অবরুদ্ধ করা হয়েছে।

এদিকে এর আগে বলা হয়েছিল লিসিচানস্কে ইউক্রেনের আঞ্চলিক প্রতিরক্ষা বাহিনীর ২ হাজার সদস্য আছে, যারা বিদেশী ভাড়াটে যোদ্ধাদের রক্ষা করছিল।

শুক্রবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় লুহানেস্ক পিপলস রিপাবলিকের সেনা এবং রুশ সেনার লিসিচানস্কের তেল শোধনাগার, মাত্রোস্কায়া খনি এবং জেলটিন প্ল্যান্টটি দখল করেছে।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/০২ জুলাই ২০২২

Back to top button