হলিউড

চতুর্থ সংসারও টিকছে না বিশ্বের ‘সবচেয়ে সুখী’ দাবি করা মারডকের

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার একটি আদালতে বিবাহ বিচ্ছেদ চেয়ে আবেদন করেছেন মিডিয়া মুঘল রুপার্ট মারডক। আর আবেদন মঞ্জুর করলে এটি হবে ৯১ বছর বয়সী মারডকের চতুর্থ বিবাহ বিচ্ছেদ।

এই বিচ্ছেদ মারডকের পরিবারের কাছে অনেকটা আশ্চর্যজনক হিসেবে এসেছে। ২০১৬ সালে সুপার মডেল জেরিকে বিয়ের করার পর মারডক বলেছিলেন, নতুন স্ত্রীকে আরও বেশি সময় দিতে চান তিনি। খবর দ্যা গার্ডিয়ান।

মার্কিন এ গণমাধ্যম জানিয়েছে, মারডক এবং জেরি হল ২০১৬ সালে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন। বিয়ের আগে তাদের ঘনিষ্ঠরা জানিয়েছিলেন, মারডক এবং জেরির সম্পর্ক বেশ মিষ্টি। তারা বিয়ের আগে থেকেই বিবাহিত দম্পতির মতো আচরণ করতো। বিয়ের দিন মারডক টুইট করে লেখেন, আগামী ১০ দিন কোনো টুইট করছি না। মনে হচ্ছে আমি বিশ্বের সবথেকে সুখী ও ভাগ্যবান মানুষ। শুধু তাই নয়, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করা বন্ধ করে দেবেন বলেও জানান তিনি।

এর আগে ১৯৬৫ সালে রুপার্ট মারডক অস্ট্রেলিয়ান ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্ট প্যাট্রিসিয়া বুকারকে বিয়ে করেছিলেন। সেই সংসার টিকেছিল মাত্র দুই বছর। পরে স্কটিশ বংশোদ্ভূত সাংবাদিক আনা মানকে ১৯৬৭ সালে বিয়ে করেন মারডক। সেটিও বিচ্ছেদ ঘটে ১৯৯৯ সালে। একই বছর চীনা বংশোদ্ভূত উদ্যোক্তা ওয়েন্ডি ডেংয়ের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন মারডক। আর সেই বিয়েও টিকেছিল ২০১৪ সাল পর্যন্ত।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে এই দম্পতি ১৩৮ লাখ ডলার ব্যয় করে লন্ডনের কাছে একটি বাড়ি কেনেন। নিউ ইয়র্কে গত বছর দুজনে একসঙ্গে মারডকের ৯০তম জন্মদিন উদযাপন করেন।

এম এস, ০২ জুলাই

Back to top button