ইউরোপ

ইউক্রেনের রুশনিয়ন্ত্রিত বন্দর দিয়ে শস্য রপ্তানি শুরু

কিয়েভ, ০১ জুলাই – রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে থাকা ইউক্রেনের বারদিয়ানস্ক সমুদ্রবন্দর দিয়ে শস্য রপ্তানি ফের শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) সাত হাজার টন শস্য নিয়ে একটি জাহাজ ইউক্রেনীয় বন্দর থেকে ‘বন্ধুসুলভ দেশগুলোর’ পথে রওয়ানা হয়েছে। স্থানীয় রুশপন্থি প্রশাসনের প্রধান টেলিগ্রামের এক বার্তায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। খবর এএফপির।

ইউক্রেন কিছুদিন ধরে অভিযোগ করে আসছে, দেশটির দক্ষিণাঞ্চল থেকে শস্য চুরি করছে রাশিয়া ও তার মিত্ররা। এছাড়া রুশ নৌবাহিনীর অবরোধের কারণে ইউক্রেনীয় সমুদ্রবন্দরগুলো দিয়ে শস্য রপ্তানি বন্ধ থাকায় বিশ্বব্যাপী খাদ্যঘাটতির ঝুঁকি দেখা দিয়েছে।

যুদ্ধ শুরুর পর থেকে বেশিরভাগ আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম স্থলপথে চালাতে হচ্ছে বলে অভিযোগ কিয়েভের। তবে বারদিয়ানস্ক বন্দর দিয়ে বৃহস্পতিবার রপ্তানি শুরুর মাধ্যমে ইউক্রেনের শস্য তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে পৌঁছানোর একটি সামুদ্রিক রুট চালু হলো বলে মনে করা হচ্ছে।

এদিন ইউক্রেনের রুশপন্থি প্রশাসনের প্রধান ইভজেনি বালিটস্কি বলেছেন, কয়েক মাসের মধ্যে প্রথমবারের মতো একটি বাণিজ্যিক জাহাজ বারদিয়ানস্ক বন্দর ছেড়েছে। এটি সাত হাজার টন শস্য নিয়ে বন্ধুত্বপূর্ণ দেশগুলোর দিকে যাচ্ছে।

তিনি জানান, কৃষ্ণসাগরে থাকা রাশিয়ার জাহাজগুলো শস্যবাহী জাহাজটির নিরাপত্তা নিশ্চিত করছে। বারদিয়ানস্ক বন্দর থেকে সব মাইন সরিয়ে ফেলা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন এ কর্মকর্তা। তবে জাহাজটি ঠিক কোন দেশে যাচ্ছে, তা নিশ্চিত করেননি তিনি।

দক্ষিণ-পূর্ব ইউক্রেনের জাপোরিঝিয়া অঞ্চলে ও আজভ সাগরের উত্তর উপকূলে অবস্থিত বন্দর নগরী বারদিয়ানস্ক। যুদ্ধের প্রথম সপ্তাহ থেকেই খেরসন ও জাপোরিঝিয়ার মতো ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় এলাকাগুলো রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

মস্কোপন্থি প্রশাসনের এক প্রতিনিধি রুশ বার্তা সংস্থা আরআইএ নভোস্তিকে জানিয়েছেন, বারদিয়ানস্ক বন্দর দিয়ে ১৫ লাখ টন শস্য রপ্তানি হতে পারে।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/০১ জুলাই ২০২২

Back to top button