জাতীয়

সঠিকভাবে চাইলে কর্মকর্তারা তথ্য দিতে বাধ্য: প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ২৯ জুন – সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মো. আশরাফ আলী খান খসরু বলেছেন, তথ্য পাওয়া জনগণের নাগরিক অধিকার। জনগণ সঠিকভাবে তথ্য চাইলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা সেই তথ্য দিতে বাধ্য থাকবেন।

বুধবার (২৯ জুন) সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ২০২১-২২ অর্থবছরের তথ্য অধিকার কর্মপরিকল্পনার লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী ‘তথ্য অধিকার আইন ও বিধিবিধান সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধিকরণ’ শীর্ষক এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। সমাজসেবা অধিদপ্তরের মধুমতি সম্মেলন কক্ষে কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, জনগণের তথ্য জানার অধিকার রয়েছে। এক্ষেত্রে নিয়ম অনুযায়ী তাকে আবেদন করতে হবে। তবে অনেক সময় কিছু কর্মকর্তার অজ্ঞতার কারণেও জনগণ সঠিক তথ্য পায় না। এজন্য তথ্য অধিকার কর্মকর্তাদের আরও জানার প্রয়োজন রয়েছে। তারা যত জানবেন তত তথ্য জনগণকে দিতে পারবেন।

সভাপতির বক্তব্যে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বার্ষিক তথ্য অধিকার আইনটি ধীরে ধীরে প্রসার লাভ করছে। জনগণ এখন অনেক তথ্য ওয়েবসাইট থেকে পাচ্ছে। কিছু সুনির্দিষ্ট তথ্য ছাড়া জনগণকে সব তথ্যই সরকার দিতে বাধ্য। এজন্য তথ্য অধিকার নিয়ে জনগণের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তুলতে হবে।

কর্মশালায় কি-নোট পেপারস উপস্থাপন করেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) ড. শাহ আলম। আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শেখ রফিকুল ইসলাম, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব সৈয়দ মেহেদী হাসান ও উপসচিব খাদিজা নাজনীন।

সুশীল সমাজের প্রতিনিধি হিসেবে আলোচনায় অংশ নেন নিজেরা করি’র নির্বাহী পরিচালক খুশী কবির ও অপরাজেয় বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক ওয়াহিদা বানু। কর্মশালায় সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়, সুশীল সমাজ, বিভিন্ন বেসরকারি সংগঠন, ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার কর্মী ও জনপ্রতিনিধিরা অংশ নেন।

সূত্র : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর
এম এস, ২৯ জুন

Back to top button