উত্তর আমেরিকা

গর্ভপাতের অধিকার চেয়ে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে বিক্ষোভ

ওয়াশিংটন, ২৬ জুন – যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় অর্ধ শতাব্দী ধরে বহাল থাকা গর্ভপাতের সাংবিধানিক অধিকার বাতিল করে রায় দিয়েছে মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট। এই রায়ের বিরুদ্ধে দেশটির বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন প্রতিবাদকারীরা।

ভয়েজ অব আমেরিকা, রয়টার্সের মতো আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ও বার্তা সংস্থাগুলো জানিয়েছে- রায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে নিউইয়র্ক, আটলান্টা, ডেট্রয়েট ও লস অ্যাঞ্জেলস শহরে সমবেত হয় মানুষজন। আইওয়া অঙ্গরাজ্যের সেডার র‌্যাপিডসে প্রতিবাদ চলাকালীন শুক্রবার (২৪ জুন) এক ব্যক্তিকে একটি ট্রাক ধাক্কা দেয়। পুলিশ জানায়, ওই ব্যক্তির আঘাত তেমন গুরুতর নয়। এদিন নিউইয়র্ক শহরে শতাধিক প্রতিবাদকারী রো মামলাটির রায় পাল্টে দেওয়ার বিপক্ষে এবং গর্ভপাতের অধিকারের পক্ষে স্লোগান দেয়।

আদালতের রায় গর্ভপাতের অনুমতির বিষয়টি অঙ্গরাজ্যগুলোর নিজেদের সিদ্ধান্তের ওপর ন্যস্ত করেছে। এর মাধ্যমে ১৯৭৩ সালের রো বনাম ওয়েড নামক মামলার সিদ্ধান্তটি পাল্টে দেওয়া হয়। পুরোনো রায়টিতে নারীদের জন্য গর্ভধারণের প্রাথমিক পর্যায়ে গর্ভপাতের অধিকারের নিশ্চয়তা দিয়েছিল।

এদিকে, শুক্রবার আদালতের রায় ঘোষণার পর থেকে ওয়াশিংটনে গর্ভপাতের অধিকারের পক্ষের ও বিপক্ষের, উভয় দিকের প্রবক্তারাই সুপ্রিম কোর্টের বাইরে জড়ো হতে শুরু করেন। সমবেত মানুষের এই ভিড় আগামীতে আরও বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ডেমোক্র্যাট দলীয় আইনপ্রণেতাদের একটি দল, ইউএস ক্যাপিটালের বাইরে গর্ভপাতের সমর্থক বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেন। প্রগতিশীল কংগ্রেস সদস্য অ্যালেক্স্যান্ড্রিয়া ওকাসিও-কর্টেজ সেখানে মানুষজনকে রাস্তায় নামার আহ্বান জানিয়ে স্লোগান দেন।

অপরদিকে, গর্ভপাতের অধিকারের বিরোধীরা শুক্রবারের রায়ে উল্লাস প্রকাশ করেন। তারা নেচে, বাদ্য বাজিয়ে ও ‘বিদায়, রো’ বলে স্লোগান দিয়ে তাদের সমর্থন প্রকাশ করেন। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শুক্রবার মার্কিন নাগরিকদের প্রতি অনুরোধ জানান, যাতে তারা সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার সময় শান্তি বজায় রাখেন। যদিও তিনি বলেন, অনেক মার্কিন নাগরিক আদালতের এই রায়ে ‘হতাশ ও বিভ্রান্ত’।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, সহিংসতা কখনোই গ্রহণযোগ্য নয়। হুমকি ও ভীতি প্রদর্শন কোনো বক্তব্য নয়। আমাদের যে কোনো ধরনের সহিংসতার বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হবে।

সূত্র: বাংলানিউজ
এম ইউ/২৬ জুন ২০২২

Back to top button