দক্ষিণ এশিয়া

ইমরানের ঘরে গোপন ক্যামেরা লাগাতে গিয়ে আটক বাড়ির কর্মী

ইসলামাবাদ, ২৬ জুন – পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খানের শোওয়ার ঘরে ‘স্পাই ক্যামেরা’ লাগাতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়েছে তারই বাড়ির এক কর্মী। তবে তার দল দাবি করছে, ইমরান খানের ওপর নজরদারি চালানো হচ্ছে। ওই কর্মীকে ঘুস দিয়ে এ কাজ করানো হয়েছে।

বিভিন্ন সূত্র বলছে, বানি গালার এক কর্মী তার শোওয়ার ঘরে একটি ডিভাইস লাগানোর চেষ্টা করেন। যদিও সেটি বানচাল হয়। ঘটনা জানার পর বানি গালার নিরাপত্তা দল ওই কর্মচারীকে আটক করে ফেডারেল পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে।

পিটিআই নেতা শাহবাজ গিল বলেছেন, দল বেশ কয়েকবার ইমরান খানের জীবন হুমকির মুখে বলে উল্লেখ করেছে। তিনি আরও বলেন, এ বিষয়ে আমরা সরকারসহ সংশ্লিষ্ট সব সংস্থাকে জানিয়েছি।

তিনি এআরওয়াই নিউজের সঙ্গে কথা বলার সময় বলেন, একজন কর্মচারী, যিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রীর কক্ষ পরিষ্কার করেন। তাকে একটি গুপ্তচরবৃত্তির জন্য যন্ত্র ইনস্টল করতে অর্থ প্রদান করা হয়েছিল।

তিনি আরও বলেন আমাদের লোকদের তথ্য পাওয়ার জন্য হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এই ধরনের লজ্জাজনক কাজ এড়ানো উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি। পিটিআই নেতা আরও বলেছেন যে গ্রেফতার হওয়া ওই কর্মচারী বেশ কয়েকটি ঘটনা প্রকাশ করেছে। যা তিনি এই মুহূর্তে শেয়ার করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

এর আগে ২৩ জুন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ ইমরান খানের জীবনের হুমকি মুখে এমন দাবি প্রত্যাখ্যান করেন। একটি বেসরকারি নিউজ চ্যানেলের সাথে কথা বলার সময়, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন যে ইমরান খানের বিরুদ্ধে কোনো হুমকি সতর্কতা ছিল না। তিনি আরও বলেন যে ইমরান খানকে প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন, একই স্তরের নিরাপত্তা এবং প্রোটোকল দেওয়া হচ্ছে।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/২৬ জুন ২০২২

Back to top button