এশিয়া

চীনে অস্বাভাবিক বন্যা, সরানো হলো লাখো মানুষকে

বেইজিং, ২২ জুন – অবিরাম ভারি বৃষ্টির কারণে চীনের দক্ষিণ ও পূর্বাঞ্চল প্রদেশে ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে। কোনো কোনো জায়গায় ঘটছে ভূমিধসের ঘটনা। এরই মধ্যে বন্যাকবলিত এলাকা থেকে হাজার হাজার নাগরিককে উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (২২ জুন) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এরই মধ্যে দেশটির গুরুত্বপূর্ণ প্রদেশ দুটিতে বন্যা সতর্কতা বাড়ানো হয়েছে। কারণ সেখানের নদীগুলো পানিতে ডুবে গেছে। বলা হচ্ছে, বন্যায় পানির মাত্রা ৫০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ হয়েছে।

দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যগুলোতে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা গেছে, রস্তায় রাখা গাড়ি বন্যায় ভেসে যাচ্ছে ও রশি দিয়ে মানুষকে উদ্ধার করা হচ্ছে। কর্মকর্তারা জানান, অঞ্চলটিতে ১৯৬১ সালের পর সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে।

এদিকে নদীর তীরে ও নিচু এলাকায় বসবাসকারী সম্প্রদায়ের বাসিন্দাদের উচ্চ ভূমিতে সরে যাওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, বন্যায় গুয়াংডং প্রদেশের শাওগুয়ান শহরটি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে সেখানের কর্মকর্তারা বন্যা সতর্কতা বাড়িয়েছেন। কারণ মে মাসের শেষ দিক থেকে শহরে রেকর্ড বৃষ্টি হয়েছে। গুয়াংডংয়ের কিংইয়ুয়ান শহরের জন্যও একই ধরনের সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এদিকে দক্ষিণ-পূর্ব চীনের জিয়াংসি প্রদেশে নয়টি জেলার চার লাখ ৮৫ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানেও কর্তৃপক্ষ বন্যা সতর্কতা জারি করেছে।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/২২ জুন ২০২২

Back to top button