ঢালিউড

হত্যাচেষ্টা মামলায় নায়িকা একার বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণ

ঢাকা, ২০ জুন – রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় দায়ের করা হত্যাচেষ্টা মামলায় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী সিমন হাসান একার বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণ করেছেন আদালত।

সোমবার (২০ জুন) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল ইসলামের আদালত এ চার্জশিট গ্রহণ করেন। বিচারের জন্য প্রস্তুত হওয়ায় মামলাটি বদলির আদেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান হাতিরঝিল থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা সাব-ইন্সপেক্টর এস এম মনিরুজ্জামান।

গত ২৪ এপ্রিল একাকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা হাতিরঝিল থানার সাব-ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) মো. ফয়সাল।

এর আগে, মাদক মামলায়ও একার বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। মামলাটি বর্তমানে বিচারাধীন। দুই মামলায় একা জামিনে আছেন।

গত ৩১ জুলাই গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে নায়িকা সিমন হাসান একাকে (৪২) আটক করে পুলিশ। গত ১ আগস্ট আদালত একার জামিন ও রিমান্ড নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছিলেন। পরে দুই মামলায় জামিন পেয়ে কারামুক্ত হন তিনি।

জানা যায়, গৃহকর্মী হাজেরা বেগম মাসিক তিন হাজার টাকা বেতনে গত ৩ মাস যাবত কাজ করে আসছিলেন। কাজ শেষে গত ৩১ জুলাই বিকেল সাড়ে চারটার দিকে একার কাছে পাওনা বকেয়া বেতনের দুই মাসের ৬ হাজার টাকা চান। তখন একা তাকে বলেন, তোকে দিয়ে আর কাজ করাবো না এবং হাজেরা বেগমকে গলা ধাক্কা দিয়ে দেয়। পাওনা টাকা না দিলে যাবে না জানালে হাজেরা বেগমকে এলোপাথাড়ি মারপিট করে এবং রান্না ঘর থেকে বটি এনে মাথায় কোপ দেয়। হাজেরা বেগম হাত দিয়ে ঠেকাতে গেলে তার বাম হাত জখম হয়। তখন ভিকটিম ডাক-চিৎকার দিলে একা তার মুখ চেপে ধরে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। এ অভিযোগে হত্যাচেষ্টা মামলা করা হয়।

এদিকে, পুলিশ হাজেরা বেগমকে উদ্ধার করতে গিয়ে একার বাসায় অভিযান চালায়। একার বেড রুমের বিছানার ওপর থেকে ৫ পিচ ইয়াবা, ৫০ গ্রাম গাঁজা, ৫৫০ মিলি মদ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় মাদক মামলা করা হয়।

এম এস, ২০ জুন

Back to top button