সুনামগঞ্জ

বন্যার মধ্যে ডিসি কার্যালয়ে শিশুর জন্ম, নাম রাখলেন প্রধানমন্ত্রী

সুনামগঞ্জ, ২০ জুন – বন্যার মধ্যে নৌকায় যাওয়ার সময় সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জন্ম নেওয়া নবজাতকের নাম রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার সন্ধ্যায় সুমন মিয়া-জমিলা বেগম দম্পতির সন্তানটি পৃথিবীর আলো দেখে।

পরে রাতে মা ও নবজাতককে দেখতে যান জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কল করলে জেলা প্রশাসক বিষয়টি তাকে জানান। এরপর প্রধানমন্ত্রী দুর্যোগে জন্ম নেওয়া ওই শিশুর নাম রাখেন নূহ আলম প্লাবন।

সোমবার জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন এসব তথ্য জানিয়ে বলেন, নবজাতক প্লাবনকে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে নতুন পোশাক, মশারি, তেল, লোশনসহ উপহারসামগ্রী দেওয়া হয়েছে। মা ও নবজাতক বর্তমানে সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে ভালো আছেন।

ভাড়ায়চালিত মাইক্রোবাসের চালক সুমন মিয়া (৩৫) ও জমিলা বেগম (২৭) দম্পতি থাকেন জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর গ্রামে। সুনামগঞ্জ শহরের মল্লিকপুর এলাকায় জমিলার বাবার বাড়ি। সন্তান জন্মদানের জন্য জগন্নাথপুর থেকে স্ত্রীকে নিয়ে সুনামগঞ্জে এসেছিলেন সুমন মিয়া।

শনিবার বন্যা ও ঝড়বৃষ্টির মধ্যে প্রসবব্যথা ওঠায় সুনামগঞ্জ পৌর শহরের মল্লিকপুর এলাকা থেকে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে নিয়ে নৌকায় করে হাসপাতালে রওনা দেন সুমন মিয়া। পথে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে গিয়ে নৌকাটি আটকে যায়। এরপর জেলা প্রশাসকের সহায়তায় তার কার্যালয়ে ফুটফুটে ছেলেসন্তানের জন্ম দেন জমিলা বেগম।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/২০ জুন ২০২২

Back to top button