দক্ষিণ এশিয়া

ভারতে ১৬ বছরেই বিয়ে করতে পারবে মুসলিম মেয়েরা

১৬ বছর হলেই বিয়ে করতে পারবে মেয়েরা

চণ্ডীগড়, ২০ জুন – ১৬ বছর বয়স হলেই কোনো মুসলমান মেয়ে তার পছন্দের মানুষকে বিয়ে করতে পারেন। সোমবার (২০ জুন) একটি মামলার এমন রায় দিয়েছেন পাঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্ট। আদালত জানিয়েছেন, ১৬ বছরের বেশি বয়সি কোনো মুসলমান মেয়ে তার পছন্দের ব্যক্তির সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্কে জড়াতেই পারেন।

সম্প্রতি, পাঠানকোটে ২১ বছরের এক যুবক ও ১৬ বছরের একটি মেয়ে পরিবারের অমতে বিয়ে করেন। কিন্তু পরিবার তাদের আলাদা করতে চাইছে, এই অভিযোগ এনে নিরাপত্তা চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন ওই দম্পতি।

সোমবার সেই মামলার শুনানি হয় পাঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্টে। বিচারপতি যশজিৎ সিংহ বেদী বলেন, ‘আবেদনকারীরা (দম্পতি) শুধু মাত্র তাদের পরিবারের ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ে করেছেন বলে ভারতীয় সংবিধান বর্ণিত মৌলিক অধিকার থেকে তাদের বঞ্চিত করা যায় না।’

এরপর বিচারপতি বেদী শরিয়ত আইন উল্লেখ করে বলেন, একজন মুসলমান মেয়ের বিয়ে ‘মুসলমান ব্যক্তিগত আইন’ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। বিচারপতি জানান, স্যর দিনশাহ ফারদুনজি মোল্লার ‘প্রিন্সিপলস্ অব মহামেডান ল’ বইয়ের ১৯৫ অনুচ্ছেদ অনুসারে, ১৬ বছরের বেশি বয়সি মেয়ে তার পছন্দের ব্যক্তিকে বিয়ে করতে পারেন। আর পাত্রের বয়সও যেহেতু ২১ বছরের বেশি, তাই এই বিয়েতে কোনো বাধা থাকতে পারে না।

বিচারপতি ওই দম্পতির নিরাপত্তার দায়িত্বও দেন পাঠানকোট পুলিশ প্রশাসনকে।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/২০ জুন ২০২২

Back to top button