জাতীয়

বিদেশি অর্থায়নে নয়, বাংলাদেশের টাকায় পদ্মা সেতু

ঢাকা, ১৮ জুন – কোনো দ্বিপক্ষীয় কিংবা বহুপক্ষীয় আর্থিক সংস্থা পদ্মা সেতু নির্মাণে অর্থায়ন করেনি বলে জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। শুক্রবার রাতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পদ্মা সেতুর অর্থায়ন নিয়ে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কিছু মহল পদ্মা সেতু বিদেশি অর্থায়নে তৈরি এবং এই সেতুকে চীনের বিআরআইয়ের অংশ হিসেবে দেখানোর চেষ্টার বিষয়টি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নজরে এসেছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দ্ব্যর্থহীনভাবে জানাচ্ছে, পদ্মা বহুমুখী সেতু পুরোপুরি বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে নির্মিত এবং এতে কোনো দ্বিপক্ষীয় বা বহুপক্ষীয় আর্থিক সংস্থা অর্থায়ন করেনি। বাংলাদেশি এবং বিদেশি নির্মাণ প্রতিষ্ঠানগুলো এ প্রকল্প বাস্তবায়নে যুক্ত ছিল। ২৫ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদ্মা সেতু উদ্বোধন করার কথা রয়েছে।

পদ্মা সেতু নির্মাণের ফলে আঞ্চলিক যোগাযোগ বাড়বে উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পদ্মা সেতু নির্মাণের ফলে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১৯টি জেলাকে দেশের অন্যান্য অংশের সঙ্গে যুক্ত করার দীর্ঘকালের স্বপ্ন পূরণ হবে। ফলে বাংলাদেশের সামগ্রিক সমৃদ্ধি, আর্থসামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি আঞ্চলিক যোগাযোগ বৃদ্ধি পাবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আন্তরিকভাবে প্রত্যাশা করে যে বাংলাদেশের সব বন্ধু এ দেশের যুগান্তকারী প্রকল্পটি সমাপ্তি উদ্‌যাপনে অংশ নেবে। এর আরেকটি বিশেষ কারণ হলো এই সেতু পুরোপুরি বাংলাদেশ সরকার ও জনগণের অবদানে সম্পন্ন হয়েছে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ১৮ জুন

Back to top button