ক্রিকেট

ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার কোনো ব্যাখ্যা নেই সাকিবের কাছেও

অ্যান্টিগা, ১৭ জুন – ক্রিকেটের সবচেয়ে বনেদি সংস্করণ টেস্টের সাদা পোশাকে ব্যাটিং ব্যর্থতা যেন আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে ধরেছে বাংলাদেশকে। দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে শুরু করে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার পর এবার সুদূর ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে গিয়েও নখদন্তহীন ব্যাটিংয়ের খেসারত দিতে হচ্ছে টাইগারদের। দলের টপ অর্ডার থেকে মিডল অর্ডার, ব্যর্থ সবাই। আর লোয়ার অর্ডারের ব্যাটিং নিয়ে তো বাংলাদেশ কোনদিনই আশা দেখাতে পারেনি।

অ্যান্টিগায় প্রথম টেস্টে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে টাইগার ব্যাটাররা ড্রেসিং রুম থেকে মাঠের ২২ গজে যেন শুধু এলেন আর গেলেন। ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয় থেকে শুরু করে মুমিনুল হক, নাজমুল হসেন শান্ত, নুরুল হাসান সোহান, মুস্তাফিজুর রহমান আর খালেদ আহমেদ, ছয়জনই আউট হয়েছেন রানের খাতা খোলার আগেই।

বাংলাদেশ যে প্রথম ইনিংসে ১০৩ রান তুলতে পেরেছে তার কৃতিত্ব পুরোটাই অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের, সাথে আরেক সিনিয়র তামিম ইকবাল রয়েছেন। সাকিব একাই করেছেন ৫১ রান, আর টেস্টে ৫ হাজার রানের মাইলফলক ছোঁয়ার দিন তামিম ইকবাল করেছেন ২৯ রান। সাথে দুই অংক ছোঁয়া আর মাত্র একজন লিটন দাসের ১২ রান। এই তিনজন বাদে রানের খাতা খুলেছেন আর মাত্র দুজন, মিরাজের ২ আর এবাদতের ৩ রানের সাথে অতিরিক্ত থেকে আসা ৬ রান মিলিয়ে কোনমতে তিন অংক ছাড়িয়েছে বাংলাদেশের রান।

এই ম্যাচের গত মাসেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টের প্রথম ইনিংসে নিজেদের ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মতো বাংলাদেশের ছয় ব্যাটসম্যান আউট হয়েছিলেন শূণ্য রানে। সেই স্মৃতিতে ধুলো না পড়তেই এই নিয়ে তৃতীয়বারের মতো এক ইনিংসে ছয় ব্যাটার ফিরলেন শূণ্য রানে।

দিনশেষে ব্যাটসম্যানদের এমন হতশ্রী ব্যাটিংয়ের কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারেননি অধিনায়ক সাকিবও। প্রথম দিনের খেলা শেষে সাকিব বলেন, ‘আসলে দায়িত্ব নিতে হবে ব্যাটসম্যানদের নিজেদেরই। তাদের কাজটা তাদেরকেই করতে হবে। কেউ এসে তাদের মুখে তুলে খাইয়ে দিয়ে যাবে না।’

টাইগার অধিনায়ক আরও বলেন, ‘এটাকে কোনোভাবে ব্যাখ্যা করার কোনো সুযোগই দেখছি না। আমার কাছে তো কোনো ব্যাখ্যা নেই। আমি জানি না অন্য কারো কাছে আছে কি না। সাধারনত যেটা হয়, কোচ-অধিনায়কের কাজটা সহজ। ধরুন কেউ পারফর্ম করল না, তাকে বাদ দিয়ে দেই। সবচেয়ে সহজ কাজ কোচ, অধিনায়ক ও নির্বাচকদের। তুমি পারফর্ম করছ না, বাদ দিয়ে দিলাম।’

তবে প্রথপম ইনিংসের ব্যর্থতা ছাপিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ঘুরে দাঁড়ানোর আশাও করছেন সাকিব। চ্যালেঞ্জ জয় করার বার্তা দিয়ে সাকিব বলেন, ‘প্রথম ইনিংসে ব্যর্থ হয়েছে, আশা করি দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটসম্যানরা এমনভাবে ঘুরে দাঁড়াবে যেন আমরা এই ব্যর্থতা থেকে রিকভার করতে পারে। সেই চ্যালেঞ্জটা থাকবে সবার মাঝেই।’

ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার দিনে অবশ্য আশার আলো দেখিয়েছেন মুস্তাফিজ -এবাদতরা। উইন্ডিজ পেসাররা যেমন আগুন ঝরিয়েছেন পিচে, টাইগার পেসাররাও কম যাননি কোনোভাবে। পেসারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিং কোনোভাবেই হাত খুলতে খেলতে দেয়নি পারেনি ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের ১০৩ রানের জবাবে প্রথম দিন শেষে ৪৮ ওভারে ২ উইকেটে ৯৫ রান তুলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। উইন্ডিজরা পিছিয়ে এখনও ৮ রানে। ক্রেইগ ব্রেথওয়েট ১৪৯ বলে ৪২ আর এনক্রূমাহ বোনার ৪৩ বলে ১২ রান নিয়ে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেছেন।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ১৭ জুন

Back to top button