দক্ষিণ এশিয়া

পাকিস্তানে ফের বাড়লো পেট্রল-ডিজেলের দাম

ইসলামাবাদ, ১৬ জুন – আরেক দফা পেট্রল ডিজেলের দাম বাড়ালো পাকিস্তান সরকার। বুধবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী মিফতাহ ইসমাইল ঘোষণা দেন যে, সরকার আর পেট্রোলিয়াম পণ্যে ভর্তুকি বহন করার অবস্থায় নেই। সে কারণে পেট্রোলের দাম ২৪ দশমিক ৩ রুপি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ফলে এখন থেকে লিটারপ্রতি পেট্রলের দাম হবে ২৩৩ দশমিক ৮৯ রুপি। জিও টিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিকে ডিজেলের দাম বাড়ানো হয়েছে ৫৯ দশমিক ১৬ রুপি। আগে ডিজেলের দাম ছিল ২০৪ দশমিক ১৫ রুপি। এখন দাম বেড়ে হয়েছে ২৬৩ দশমিক ৩১ রুপি।

শুধু পেট্রল-ডিজেল নয়, দেশটিতে কেরোসিন তেলের দামও বাড়ানো হয়েছে। আগে কেরোসিনের দাম ছিল ১৭৮ দশমিক ৩১ রুপি। এখন ৩৩ দশমিক ১২ রুপি বাড়ানোয় কেরোসিন তেলের দাম হয়েছে ২১১ দশমিক ৪৩ রুপি। এ নিয়ে তিন দফায় কেরোসিনের দাম বাড়লো। এছাড়া গত ২০ দিনের মধ্যে তৃতীয়বারের মতো পেট্রল-ডিজেলের দাম বাড়ানো হলো।

মিফতাহ ইসমাইল বলেন, ইমরান খান ভর্তুকি দিয়ে পেট্রলের দাম কমিয়েছিলেন। তার এই ভুল সিদ্ধান্তের ধাক্কা এখন বর্তমান সরকারকে সামলাতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, বর্তমানে পাকিস্তান সরকারকে প্রতি লিটার পেট্রলে ২৪ দশমিক ৩ রুপি, ডিজেলে ৫৯ দশমিক ১৬ রুপি, কেরোসিন তেলে ৩৯ দশমিক ৪৯ রুপি ক্ষতিপূরণ দিতে হচ্ছে।

এর আগে দেশটির ধসে পড়া অর্থনীতি চাঙা করতে সাধারণ জনগণকে চা পানের পরিমাণ কমিয়ে আনার আহ্বান জানান দেশটির পরিকল্পনা ও উন্নয়ন মন্ত্রী আহসান ইকবাল।

তিনি বলেন, পাকিস্তানকে যেহেতু চা আমদানি করতে হয়, তাই এর পেছনে যথেষ্ট পরিমাণে বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয় হয়। এ অবস্থায় দেশের মানুষ কিছুদিন চা কম খেলে বৈদেশিক মুদ্রার সাশ্রয় হবে।

তিনি বলেন, এক থেকে দুই কাপ চা কম পান করার জন্য সবাইকে অনুরোধ করবো। কারণ আমরা ঋণ করে চা আমদানি করি। আহসান ইকবাল এটাও বলেন যে, দিনে যত কম কাপে চুমুক দেওয়া যাবে পাকিস্তানের আমদানি ব্যয় তত কম হবে। এছাড়া বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের জন্য ব্যবসায়ীদেরকে দোকানপাট স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৩০ মিনিটের মধ্যে বন্ধ করারও পরামর্শ দেন তিনি।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/১৬ জুন ২০২২

Back to top button